চা উৎপাদন মৌসুমের শুরুতে ব্যতিক্রমী “রোজ টি” প্রতি কেজি ৩ হাজার টাকা

May 6, 2021, এই সংবাদটি ২৩০ বার পঠিত

মু. ইমাদ উদ দীন॥ চায়ের স্বাদে ও ঘ্রাণে ভিন্নতা আনতে ব্যতিক্রমী প্রচেষ্ঠা। দেশের এই প্রথম চায়ের আবিষ্কার। এমনটি দাবি সংশ্লিষ্ট বাগান কর্তৃপক্ষের। হালকা গোলাপ রংয়ের গোলাপ সুগন্ধি চা “রোজ টি”।
জানা যায় এই চায়ের আবিষ্কারক হবিগঞ্জ জেলার বৃন্দাবন চা বাগান কর্তৃপক্ষ। চায়ের স্বাদে ও ঘ্রাণে ভিন্নতা আনতে গেল কয়েক বছর থেকেই এই প্রচেষ্ঠা অব্যাহত রেখেছেন বাগান কর্তৃপক্ষ। হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় ১১৮৩ একর জমিজুড়ে বিস্তৃত বৃন্দাবন চা বাগান। ১৯২০ সাল থেকে চা উৎপাদন করে আসছে বাগানটি। ‘রোজ টি’র আগে তারা প্রথমবারের মতো উৎপাদন করেছে ‘ইয়েলো টি’ ও ‘হোয়াইট টি’। যা প্রতি কেজির দর ৫-৭ হাজার টাকা।
৫ মে বুধবার ‘রোজ টি’ কেজি প্রতি ৩ হাজার টাকা নিলামে বিক্রি হয়েছে। সকালে করোনায় মধ্যেই স্বল্প পরিসরে দেশে দ্বিতীয় চা-নিলাম মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে (২০২০-২০২১) অনুষ্ঠিত হয়। এ চা-নিলামটি চায়ের উৎপাদন মৌসুমের প্রথম। এতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের চায়ের ক্রেতা ও বিক্রয় প্রতিনিধিরা অংশ নেন।
নিলামে হবিগঞ্জ জেলার বৃন্দাবন চা-বাগান কর্তৃপক্ষ দেশে প্রথম বারের মতো গোলাপ রংয়ের গোলাপ সুগন্ধি চা ‘রোজ টি’ নিলামে নিয়ে আসে। চীন নানা কালারের সুগন্ধি চা আবিষ্কার করছে। আর সে থেকে তাদের এই প্রচেষ্ঠা। এমনটি সাংবাদিকদের জানান ওই বাগান ব্যবস্থাপক। নতুন এই চায়ের এর নাম ‘রোজ টি’। এ চায়ের লিকার খুবই সুন্দর হালকা গোলাপি রংয়ের। ওই চা পানে গোলাপি সুগন্ধ ছড়ায়।
শ্রীমঙ্গল টি ব্রোকারস সূত্রে জানা যায় এবারের চা নিলামে বিভিন্ন চা বাগান থেকে প্রায় ৬৭ হাজার ৮২৬ কেজি চা পাতা বিক্রির জন্য নিলামে উত্তোলন করা হয়। যার বাজার দাম এক কোটি টাকার ওপরে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •