জুড়ীতে জনপ্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তারা পেলেন করোনার সুরক্ষা সামগ্রী

June 21, 2020, এই সংবাদটি ৬৭ বার পঠিত

এম. মছব্বির আলী॥  জুড়ীতে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দ থেকে কোভিড-১৯ সুরক্ষা সামগ্রী জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। ২১ জুন রবিবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বণিকের সভাপতিত্বে উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে এই সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুক, জুড়ী থানার অফিসার ইনর্চাজ জাহাঙ্গীর আলম সরদার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের রিংকু রঞ্জন দাস, শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম সাদেক, উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন, কৃষি কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ওমর ফারুক, সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রাজন কুমার সাহা, উপজেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আব্দুল মতিন, জায়ফরনগর ইউপি চেয়ারম্যান মাছুম রেজা, পশ্চিম জুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাস, ডা. অনিক ও শহীদুল ইসলামসহ উপজেলার প্রতিটি সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দ হতে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে উপজেলা সমূহের জন্য উন্নয়ন সহায়তার থোক বরাদ্দের আওতায় বরাদ্দকৃত অর্থ দ্বারা কোভিড-১৯ এর সুরক্ষা সামগ্রী ক্রয় করা হয়। ৫ লক্ষ ৭৩ হাজার ৩৩৫ টাকার বরাদ্দের মধ্যে রয়েছে ( ১০টি অক্সিমিটার, ৬০ পিস মাস্ক এন ৯৫, ২০০ পিস মাস্ক কেএন ৯৫, ৫০ বক্স সার্জিকেল মাস্ক, ১০০ পিস ফেইস শিল্ড, ১০০ জোড়া সার্জিকেল গ¬াভস, ৫০ বক্স ওয়ান টাইম গ¬াভস, ২০টি ইনফারেড থার্মোমিটার, ৩টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ৫০০টি হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ১২টি পিপিই, ১০০ টি সোপ ডেটল ও ৫০টি গোগলস)।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বণিক বলেন, এই সুরক্ষা সামগ্রী উপজেলা প্রশাসনের সকল দপ্তরের কর্মকর্তা ও উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বিতরন করা হয়েছে। সরকারের বিশেষ বরাদ্দ দিয়ে স্বচ্ছতার ভিত্তিতে তা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •