জুড়ীতে মা-বাবার ঝগড়া থামাতে গিয়ে স্কুলছাত্রী খুন

July 10, 2016,

জুড়ী প্রতিনিধি :  পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন মা-বাবার ঝগড়া থামাতে গিয়ে বাবার দায়ের কুপে ছালমা আক্তার নামে এক স্কুল ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বিরইনতলা গ্রামে। বিরইনতলা গ্রামের আব্দুল হান্নানের মেয়ে রাঘনা বটুলী উ”” বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী সালমা আক্তার পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন মা-বাবার ঝগড়া বিবাদ থামাতে গিয়ে ধারালো দায়ের কুপে নিহত হয়। এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, হান্নান এবং তার স্ত্রী পারিবারিক কলহের জেরে দীর্ঘ দিন থেকে স্বামী/স্ত্রীর মধ্যে প্রতিনিয়ত ঝগড়া, বিবাদ, মারা মারির ঘটনা ঘটছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হান্নান দা নিয়ে স্ত্রীকে কুপ দিতে গেলে মেয়ে সালমা আক্তার মাকে বাচাতে গেলে পিতার দায়ের কুপ লাগে মেয়ে সালমা আক্তারের গলার বাম দিকে, গলার রগ কেটে যাওয়ার ফলে কিছু সময় পর অতিরিক্ত রক্ত করনের পর মেয়েটি মাটিতে পড়ে যায়, পরে ওই দিন র রাতে তাকে নিয়ে ভর্তি করা হয় সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল হাসপাতালে। পরদিন শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্কুল ছাত্রী সালমার মৃত্যু হয়। লাশ বাড়িতে এনে সালমা আত্মহত্যা করেছে মর্মে ময়না তদন্ত ছাড়াই ৯জুলাই শনিবার সকাল ১০টার সময় লাশ দাফন করা হয়েছে। এ বিষয় জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হামিদ লাশের গলায় দায়ের আঘাতের সত্যতা স্বীকার করে বলেন তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •