জুড়ী থানা পুলিশের আয়োজনে জুড়ীতে মাস্ক সপ্তাহ উদ্বোধন

November 26, 2020, এই সংবাদটি ১৪৯ বার পঠিত

জুড়ী প্রতিনিধি॥ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের মাস্ক সপ্তাহ উদ্বোধন। “মাস্ক পরুন, সেবা নিন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আটকে দিন” ” মাস্ক না পরলে,প্রবেশ যাবে আটকে” “ঝুকি নেয়ার দরকার নাই,মাস্ক ছাড়া গতি নাই” “মাস্ক পরি সুস্থ থাকি,প্রিয়জনকে রক্ষা করি” শ্লোগান নিয়ে বৃহস্পতিবার ২৬ নভে¤র সকাল ১১ টায় মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ মাস্ক সপ্তাহ উদ্বোধন করে। এ উপলক্ষে জুড়ী থানা পুলিশের আয়োজনে জুড়ী উপজেলা সদর ভবানীগন্জবাজার স্কুল চৌমুহনাতে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সন্ঞ্জয় চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জুড়ী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাশ, উপজেলা দূর্ণীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব তাজুল ইসলাম,পঃজুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ,পঃজুড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জুবের হাসান জেবলু,জুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি সিরাজুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন কামিনীগন্জবাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি কামাল উদ্দিন,ভবানীগন্জবাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম এ মহসিন মুহিন সহ জুড়ী উপজেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীগণ সহ জুড়ী থানার সকল পুলিশ সদস্য এবং ব্যবসায়ীবৃন্দ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আল ইমরান রুহুল ইসলাম বলেন,করোনা ভাইরাস নিয়ে উৎকন্ঠা, ভয় শেষ না হতেই সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় ঢেউয়ের কথার উঠছে।কেবল পশ্চিমা দেশেই নয়,বাংলাদেশে ও দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা করার জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে। ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নতুন করে সংক্রমণের হার বাড়ছে।বিভিন্ন দেশ আবার কঠোর লকডাউনের কথা ভাবছে। বাংলাদেশে ও সংক্রমণ আকস্মিক হারে বাড়ছে। সভার সভাপতি ও জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সন্ঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে জেলা পুলিশ, মৌলভীবাজার জনসাধারণকে সচেতন করার লক্ষ্যে প্রতিটি থানায় একটি মাস্ক মন্ঞ্চ স্হাপন করেছে। মৌলভীবাজার জেলার ৩০ টি স্হানে একযোগে এই কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয় এবং এটি সপ্তাহব্যাপি চালু থাকবে। এছাড়া একসাথে জেলার বিভিন্ন স্হানে চেকপোষ্ট স্হাপন করে যাদের মাস্ক নাই তাদেরকে মাস্ক পড়ার শপথ করানো হবে,প্রাথমিকভাবে মাস্ক সরবরাহ করা হবে,মাস্ক ছাড়া প্রবেশ নিরুৎসাহিত করা হবে। মাস্ক ব্যবহার না করলে পরবর্তীতে ক্রমান্বয়ে আরও কঠোর ব্যবস্হা গ্রহণ করা। করোনা মোকাবেলায় গণমাধ্যম কর্মী সবসময় জেলা পুলিশের পাশে থাকায় ধন্যবাদ জানিয়ে ওসি বলেন,আপনারাই পারেন দেশের জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে আরও সচেতন করে তুলতে।ভবিষ্যতে আপনাদের সহযোগিতা একান্ত কাম্য। সভার শেষ পর্যায়ে মাস্ক ছাড়া ঘর থেকে বাহির না হওয়া এবং মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে শপথ পাঠ করানো হয়। সভা শেষে জুড়ী বাজারে এক র্যালী বের করে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •