বন্যার পানিতে সাঁতার শিখতে গিয়ে প্রাণ গেল কলেজ ছাত্রের

July 6, 2022,

স্টাফ রিপোর্টার॥ কলেজছাত্র অনুপম বন্যার পানিতে সাঁতার শিখতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন অনুপম উপাধ্যায় (২০) নামের এক কলেজছাত্র। মঙ্গলবার ৫ জুলাই রাতে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার ধামাই চা-বাগান এলাকা থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল তার মরদেহ উদ্ধার করে।
অনুপম শ্রীমঙ্গল উপজেলার গান্ধীছড়া চা-বাগানের বাসিন্দা। তিনি কুলাউড়া উপজেলার লংলা আধুনিক ডিগ্রি কলেজের সমাজবিজ্ঞান স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ছাত্র। স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে বন্যার পানিতে বন্ধুদের সঙ্গে সাঁতার শিখতে পানির ড্রাম নিয়ে নামেন অনুপম। পানির ড্রাম ছিদ্র হয়ে যাওয়ায় ডুবে যান তিনি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর রাতে তার মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।
ধামাই বাজারের ব্যবসায়ী মোর্শেদ মিয়া বলেন, অনুপম তার মামা ধামাই চা-বাগানের বাসিন্দা কিশোর মিত্রের বাড়িতে থাকতো। সম্প্রতি ভারী বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ধামাই চা-বাগানের বিভিন্ন নিচু এলাকা প্লাবিত হয়। বন্যার পানিতে বন্ধুদের সঙ্গে বন্যার পানিতে নেমে সাঁতার শিখতে শুরু করেন অনুপম। এক পর্যায়ে পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হয় সে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ডুবুরি দল তার মরদেহ উদ্ধার করে।’
কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশনের পরিদর্শক সোলায়মান হোসেন বলেন, ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরি দলের কয়েক ঘণ্টা প্রচেষ্টার পর রাতে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় কুমার চক্রবর্তী বলেন, অনুপম সাঁতার জানেন না। পানির ড্রাম নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে বন্যার পানিতে নেমে সাঁতার শিখতে শুরু করেন। একপর্যায়ে ড্রাম ছিদ্র হয়ে তিনি পানিতে ডুবে যান। পরে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও ডুবুরিরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •