বিদুত সংযোগ প্রদানের জের : শ্রীমঙ্গলে এক বিধাব ও কলেজ ছাত্রীকে পিঠিয়েছে তার প্রতিবেশী

May 2, 2016, এই সংবাদটি ১৮২ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি॥ শ্রীমঙ্গলে এক বিধবা ও তার কলেজ পড়–য়া মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে তাদেরই প্রতিবেশি পুলিন নামে এক  সম্পদ লোভী ও নারী নির্যাতনকারী। ঘটনাটি ঘটেছে শ্রীমঙ্গল ভুনবীর ইউনিয়নের রোস্তমপুর গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানাযায়, রোস্তমপুর এলাকার মৃত শিশিন্দ্র সরকারের স্ত্রী আশালতা সরকার পুলিন সরকারের ভাই বিরেন্দ্র সরকারের জমি ক্রয় করে সেখানে বসবাস করে আসছিলেন। কিন্তু বিরেন্দ্র সরকার ভাই পুলিনের কাছে জমি বিক্রি না করায় সে আশালতার পরিবারের উপর আক্রোশান্বিত হয়ে পড়ে। এক সময় জোড় করে দখল করে নেয় আশালতার একটি পুকুর। আশালতা বিদ্যুতের আবেদন করলে বিদ্যুতের মুল খুঁটি পুলিনের জমিতে থাকায় সে বাঁধা দিতে থাকে। বিদ্যুত সংয়োগ দিতে গেলে মহিলা দিয়ে পল্লিবিদ্যুতের লাইনম্যানদের উপর আক্রমন চালায়।

srimangal-nari-nirjaton.pbc

এদিকে আশলতার কোন ছেলে সন্তান না থাকায় দুই মেয়েকে নিয়ে নিরুপায় হয়ে বিদ্যুত বিহিন ও পুলিনের পরিবারের নানা নির্যাতনসহ্য করেই সেখানে বসবাস করে আসছিলেন। বিষয়টি সম্প্রতি শ্রীমঙ্গল থানার ডায়নামিক অফিসার ইনচার্জ মাহাবুবুর রহমান জানতে পারলে তিনি পুলিনকে থানায় ডাকেন, কিন্তু পুলিন তার ডাকে যথা সময়ে সারা না দেয়ায় তিনি ও শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ তদন্ত মনসুর আহমদ ঘটনাস্থলে গিয়ে পল্লিবিদ্যুতের সহায়তায় তার বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ লাগিয়ে দিয়ে আসেন। এদিকে বিদ্যুত সংযোগ দিয়ে আসার পর পরই পুলিন ও তার পরিবার আশালতা ও তার কলেজ পড়–য়া মেয়ের উপর আক্রমন চালায়। স্থানীয় লোকজন আহতবন্থায় আশালতা ও তার মেয়েকে শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে চিকিতসা দেন। এ ঘটনায় আশালতা বাদী হয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে তাদের নিরবিচ্ছিন্ন বসবাসের লক্ষে শ্রীমঙ্গল থানা এসআই আজহার উদ্দিন সোমবার ঘটনাস্থলে যান এবং পুলিনের পরিবারকে সর্তক করে আসেন । তিনি জানান, পুনরায় তাদের উপর কোন আক্রমন হলে এদের বিরোদ্ধে কঠিন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং দায়েরকৃত অভিযোগটিও আরও তদন্ত সাপেক্ষ্যে ব্যবস্থা নিবেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত পুলিন জানায়, সে প্রহার করেনি এবং আশালতা তাদের চলাচলের রাস্তা না দেয়ায় তারা বাঁধার সম্মুখীন হচ্ছেন। এ ব্যাপারে আশালতা জানান, তার মেয়ে এইচ এসসি পরীক্ষার্থী । তাদের প্রহারের ফলে সে এখন অসুস্ত। ব্যাথার কারনে পড়তে পারছেনা। তা ছাড়া মাঝেমধ্যে তার বড় মেয়ের স্বামী তাদের বাড়িতে যেতেন। পুলিন তাকেও হত্যার হুমকি দেয়ায় এখন আপদে বিপদে মেয়ের জামাইও তাদের বাড়িতে যেতে পারছেন না।  তিনি বর্তমানে আতংকের মধ্যে আছেন। পুলিনের বিরুদ্ধে এর আগেও তিনি দেওয়ানী ও নারী নির্যাতন মামলা দায়ের করেছেন। যা বিচারাধিন আছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •