বড়লেখায় এলজিইডি’র রাস্তায় পাকা দোকানঘর নির্মাণ

July 30, 2020, এই সংবাদটি ১৩৭ বার পঠিত

আব্দুর রব॥ বড়লেখা উপজেলার বর্নি ইউপির ফকিরবাজারে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) গুরুত্বপূর্ণ একটি রাস্তা দখল করে পাকা দোকানঘর নির্মাণের পায়তারা চালাচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগে উপজেলা প্রকৌশলী সংশ্লিষ্টদের সরকারী রাস্তায় পাকা স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ দেন। কিন্তু তার বাধা নিষেধ অগ্রাহ্য করে বুধবার পুলিশের উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার দোহাই দিয়ে দলবল নিয়ে ঘর নির্মাণ শুরু করেন জনৈক ফয়জুর রহমান। পরে এলাকাবাসীর বাধার মুখে তারা কাজ বন্ধ করেন। সরকারী রাস্তায় ঘেরা দিয়ে পাকা ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে ভুক্তভোগী মহল ও দখলদার পক্ষের মধ্যে যেকোন সময় মারাত্মক সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে।

অভিযোগ সুত্র ও সরেজমিনে জানা গেছে, উপজেলার দাসেরবাজার-ফকিরবাজার রাস্তাটি এলজিইডি’র তালিকাভুক্ত ‘উপজেলা সড়ক’। এ রাস্তাটি বর্নি ইউনিয়ন কার্যালয়ের সম্মুখ দিয়ে পাকশাইল হয়ে পার্শবর্তী বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জ উপজেলা সড়কের সঙ্গে সংযুক্ত। বর্নি ইউনিয়নের ফকির বাজারের প্রবেশমূখে রাস্তাটির পিচ ঘেষে ক’বছর ধরে টিনসেট দোকান করে ভাড়া দিয়েছেন জনৈক ফয়জুর রহমান। সম্প্রতি তিনি টিনের ঘেরার ভিতর গোপনে পাকা দোকানঘর নির্মাণের ভিত্তিস্থাপন করেন। এতে এ রাস্তা দিয়ে জনসাধারণ ও যানবাহন চলাচলে সমস্যা সৃষ্টি এবং দুর্ঘটনার আশংকায় এলাকাবাসী কাজে বাধার পর তিনি কাজ বন্ধ রাখেন। পুনরায় ঘর নির্মাণের পায়তারা চালালে ২৬ জুলাই রাস্তায় স্থায়ী ঘর নির্মাণের কাজ বন্ধ করার ব্যবস্থা নিতে ভুুক্তভোগী এলাকাবাসী ইউএনও ও উপজেলা প্রকৌশলীর নিকট লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগ পেয়েই উপজেলা প্রকৌশলী সামছুল হক ভুইয়া একজন সহকারী প্রকৌশলীকে পাঠিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন।

অভিযোগকারী হাজী আব্দুস শুকুরসহ অনেকেই জানান, উপজেলা প্রকৌশলীর নিষেধের ৩ দিন পর বুধবার প্রভাবশালী ফয়জুর রহমান দলবল নিয়ে পুনরায় রাস্তায় ঘর নির্মাণের কাজ শুরু করেন। কাজে বাধা দিলে প্রথমে হুমকি-ধমকি দিলেও শেষ পর্যন্ত তিনি কাজ বন্ধ করেন। এ নিয়ে এলাকাবাসী ও নির্মাণকারী পক্ষের মধ্যে যেকোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী সামছুল হক ভুইয়া জানান, অভিযোগ পেয়েই আমরা বাধা প্রদান করেছি। তারপরও যদি তারা সরকারি রাস্তায় পাকা স্থাপনা নির্মাণের চেষ্টা চালায় তবে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন।

সরকারি রাস্তায় পাকাঘর নির্মাণকারী ফয়জুর রহমান জানান, এটা রাস্তা নয়, নিজের দালিলিক জাযগা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •