বড়লেখায় দোকানের পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে খুন হল স্কুল ছাত্র

May 22, 2020, এই সংবাদটি ৫৯ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি॥ বড়লেখায় বাকীতে মাল বিক্রির ৮৫ টাকা চাইতে গিয়ে প্রবাস ফেরৎ যুবকের চুরিকাঘাতে এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্টপ্রার্থী জাকারিয়া হোসেন নির্মমভাবে খুন হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় উপজেলার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপির আরেঙ্গাবাদ গ্রামে। চুরিকাঘাতের পরই ঘাতক যুবক আজিম উদ্দিন (৩৫) পালিয়ে গেছে। তাকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।
এলাকাবাসী ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে জানা, গেছে, আরেঙ্গাবাদ গ্রামের সালাহ উদ্দিন বাড়ির পাশে টং দোকানে পান, সিগারেট ও কাঁচামালের ব্যবসা করেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে তার ছেলে এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্টপ্রার্থী জাকারিয়া হোসেন (১৮) দোকানদারী করছিল। প্রতিবেশি তোতা মিয়া বাড়ি থেকে টাকা এনে দিচ্ছেন বলে ডারবি সিগারেটসহ ৮৫ টাকার মালামাল ক্রয় করেন। বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করেও তোতা মিয়া পাওনা টাকা পরিশোধ করেননি। রাত ৮টার দিকে জাকারিয়া হোসেন দোকানের পাওনা টাকা চাইতে তোতা মিয়ার বাড়িতে যায়। তিনি টাকা নেই বলে তাকে বিদায় করার চেষ্টা করেন। কিন্ত জাকারিয়া হোসেন টাকা না দিলে তার বাবা তাকে বকাঝকা করবেন জানিয়ে বারবার অনুনয় বিনয় করে। এসময় তোতা মিয়ার ছেলে প্রবাস ফেরৎ আজিম উদ্দিন (৩৫) তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সে জাকারিয়া হোসেনকে উপুর্যুপরি চুরিকাঘাত করে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পরই ঘাতক আজিম উদ্দিন গা ঢাকা দিয়েছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আজির উদ্দিন জানান, তিনি লাশের ময়না তদন্তের জন্য বড়লেখা থানা পুলিশকে অবহিত করেছেন।
বড়লেখা থানার এসআই কৃষ্ণমোহন দেবনাথ জানান, বিষয়টি জানার পরই ঘটনাকারীকে গ্রেফতারের জন্য থানা পুলিশ কয়েক দফা অভিযান চালিয়েছে এবং তা অব্যাহত রয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরত হাল প্রতিবেদন তৈরী করছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •