বড়লেখায় লেবু লুট, গাছ কর্তন জায়গা দখলের চেষ্টা, হুমকি

October 14, 2020, এই সংবাদটি ৬৭ বার পঠিত

আব্দুর রব॥ বড়লেখায় প্রভাবশালী চক্র এক ভূমিহীন পরিবারকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা লেবু ও পান লুটের পর প্রায় শতাধিক লেবু গাছ কেটে দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন করেছে। এ ব্যাপারে বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ভুক্তভোগী মিনা বেগম ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এতে বিবাদীরা মিনা বেগমসহ পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি দিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

সরেজমিনে উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউপির জিহাদনগর (বিরাশি) গ্রামে গেলে, অনেকেই জানান মিনা বেগম দীর্ঘদিন থেকে ১ প্রতিবন্ধি ছেলে ও ৪ মেয়েসহ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বিরাশি এলাকায় সরকারি পতিত খাস ভূমির জঙ্গল পরিষ্কার করে জুম চাষের মাধ্যমে পান, সুপারি, লেবুসহ বিভিন্ন ফসলাদি চাষাবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। জীবিকার সুবিদার্থে ডিমাই এলাকার আব্দুল কালামের নিকট থেকে একটি বাড়ীর দখল ক্রয়ের মাধ্যমে বসবাস করছেন। এলাকার একটি চক্র তাদেরকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছে। এমনকি পানসহ বিভিন্ন ফসলাদি লুটপাট করে নিয়ে যায়। ১০ অক্টোবর বিকেলে মিনা বেগমের লেবু বাগানের লেবু লুট করে বাগানের সমস্ত গাছ কর্তন করেছে। এ ব্যাপারে মিনা বেগম বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জিহাদনগর বিরাশি এলাকার তরজ আলী (৬০), করিম উদ্দিন (৩০), কুদ্দুছ মিয়া (৫৫), রুবেল আহমদ (৩০), আব্দুর রহমান (৩১), আজির উদ্দিন (৫০), ডিমাই সাতকরাকান্দির এমরান আহমদ (৪০) ও পুতুল মিয়ার (৩৫) বিরুদ্ধে লুটপাট ও গাছ কর্তনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।

মিনা বেগম অভিযোগ করেন মামলা করায় বিবাদীরা জোটবদ্ধ হয়ে রাত্রে তার বাড়ীতে আক্রমন করতে যায়। উচ্চ সুরে হুমকি দেয় মামলা না তুললে ঘর বাড়ি পুড়িয়ে বাদীর পরিবারকে নিশ্চিন্ন করে ফেলবে। ফোনে স্থানীয় মুরব্বিদের জানালে তারা এগিয়ে আসায় বিবাদীরা পালিয়ে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •