বড়লেখায় ৪০ দিন জামাতে নামাজ পড়ে বাইসাইকেল জিতে নিলো ২২ শিশু ও কিশোর

May 18, 2021, এই সংবাদটি ৩১৬ বার পঠিত

আব্দুর রব॥ বড়লেখার সামাজিক সংগঠন বোয়ালী ইসলামী ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাহেদ আহমদের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত নামাজ প্রতিযোগিতায় ৪০ দিন জামাতে নামাজ আদায় করে বাই সাইকেল জিতে নিয়েছে ২২ শিশু ও কিশোর।
১৬ মে রোববার বিকালে বোয়ালী সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয় মাঠে বিজয়ী ২২ শিশু- কিশোরকে বাই সাইকেল ও প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণকারীদের শান্তনা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।
ইটাউরি মহিলা আলীম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ খাঁনের সভাপতিত্বে ও বোয়ালী ইসলামী ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাফর আহমদ হিসামের সঞ্চালনায় এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শাহবাজপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক খোরশেদ আলম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বোয়ালী ইসলামী ছাত্র পরিষদের সভাপতি আশফাক জুনেদ। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, বড়লেখা পৌরসভার প্যানেল মেয়র জেহিন সিদ্দিকী, উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সেলিম আহমদ খাঁন, শাহবাজপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি রফিক উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি নাজমুল আবেদিন, সাংবাদিক মস্তফা উদ্দিন, নিজাম উদ্দিন, আব্দুল খালিক, আব্দুর শাকুর খাঁন।
জানা গেছে, গ্রামের শিশু কিশোরেরা যাতে মসজিদে যেতে অভ্যস্ত হয়, নামাজি হয় এমন লক্ষ্যকে সামনে রেখে বোয়ালী ইসলামী ছাত্র পরিষদ ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। শর্ত ছিলো ৫-১৮ বছর বয়সী শিশু কিশোরদের গ্রামের দুই মসজিদে গিয়ে জামায়াতের সাথে ৪০ দিন নামাজ আদায় করতে হবে। নিয়মিত নামাজ আদায়কারীদের পুরস্কার হিসেবে একটি করে বাই সাইকেল প্রদান করা হবে। প্রতিযোগিতায় সাড়া দিয়ে প্রথম দিকে ৮২ জন শিশু কিশোর নামাজ আদায় শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত ২২ জন টিকে থেকে বিজয়ী হয়েছে। প্রতযোগিতায় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাহেদ আহমদ, কাওছার আহমদ, কাশেম আহমদ, আহমেদ মাসুদ, আলতাফ হোসাইন, ছাব্বির খান পৃষ্টপোষকতা করেন।
যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাহেদ আহমদ মুটোফোনে জানান, গ্রামের ছোট ভাইয়েরা নামাজ প্রতিযোগিতার মহৎ উদ্যোগের কথা প্রথমে আমাকে শেয়ার করে। আমি তাদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে গ্রামের অন্যান্য প্রবাসীদের সাথে যোগাযোগ করি। প্রত্যেকে এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান। সকলের সহযোগিতায় প্রতিযোগিতা সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •