রাজনগরের উত্তরভাগে সীমানা নির্ধারণ না করে শাহজালাল সারকারখানার দেয়াল নির্মাণ করায় উত্তেজনা

July 29, 2016,

বিশেষ প্রতিনিধি : রাজনগরের উত্তরভাগ ইউনিয়নের যাদুরগুলে সীমানা নির্ধারণ না করে শাহজালাল সার কারখানার দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দেয়াল নির্মাণ শুরু করায় ক্ষোভে ফুঁসছেন যাদুরগুলে বসবাসকারী কয়েক হাজার মানুষ। এব্যাপারে রাজনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন স্থানীয়রা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শাহজালাল সারকারখানা রাজনগর ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার সরকারি জমিতে স্থাপিত। রাজনগর উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নে ইন্দানগর মৌজার (১/১৭ ও ১৫৭  এসএ দাগের) সরকারি ওই জমিতে সহস্রাধিক লোক ঘরবাড়ি, বিদ্যালয়, মসজিদ নির্মাণ করে অর্ধ শতাব্দি যাবত বসবাস করছেন। ২০০৭ সালে  উত্তরভাগ চা বাগান কর্তৃপক্ষ ওই জমি দখলের চেষ্টা করলে জেলা জজ আদালত থেকে সুপ্রীমকোর্ট হাইকোর্ট বিভাগের রিভিশন মামলা (নং ৩২৬৫/১০) করলে ২০১৫ সালের ৩০ মার্চ আদালত নিষেধাজ্ঞা (স্টেটাস্কো) জারি করেন। ওই নিষেধাজ্ঞা এখনও বহাল রয়েছে। কিন্তু সারকারখানা প্রশাসন আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কোন ধরণের জরিপ ছাড়াই সীমানা নির্ধারণ না করে ওই ভুমির উপর দেয়াল নির্মাণ করার চেষ্টা করছে। এতে ওই এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

যাদুরগুল গ্রামের জহিরুল ইসলাম লালন জানান, অর্ধ শতাব্দি যাবৎ বসবাসকারী যাদুরগুল গ্রামের ভুমিহীন ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বসতভিটে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে শাহজালাল সারকারখানার কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার যোগসাজশে জবরদখলের পাঁয়তারা শুরু হয়েছে। সঠিকভাবে জরিপকাজ না করেই এভাবে দেয়াল নির্মাণ খুবই দুঃখজনক। এদিকে গত সোমবার ঠিকাদার আবারও দেয়াল নির্মাণের চেষ্টা করলে স্থানীয় জনগন বাঁধা দেন। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  ফারুক আহমদ ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহ শহিদুজ্জামান ছালিক ঘটনাস্থলে গিয়ে দেয়াল নির্মাণ বন্ধ রাখার জন্য বলেন।

এ ব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ শাহজালাল সারকারখানার জিএম (প্রশাসন) সুলেমান আহমদের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিষয়টির সুষ্টু সমাধানের জন্য রাজনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে চিঠি দেয়া হয়েছে সার্ভেয়ার নিয়োগের জন্য। জরিপকার্য্য সম্পাদন না করে কেন দেয়াল নির্মাণ শুরু হলো? এর সঠিক উত্তর দিতে পারেননি। তবে তিনি বলেন, জরিপকার্য্য সম্পাদন করার পর দেয়াল নির্মাণ শুরু হবে।

রাজনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফুল ইসলাম জানান, সীমানা নির্ধারণ না করে ওরা দেয়াল নির্মাণ করতে পারেনা। বিষয়টি আমার আগে জানা ছিলনা। আমি সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে বিষয়টি দেখার জন্য বলেছি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •