রাজনগরে নদীতে গোসল করতে গিয়ে এক শিশুর মৃত্যু

July 20, 2020, এই সংবাদটি ১০৪ বার পঠিত

শংকর দুলাল দেব॥ রাজনগরে নদীতে গোসল করতে গিয়ে এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু খবর পাওয়া গেছে। নিহত শিশুটি কমলগঞ্জ উপজেলার বরচেগ গ্রামের ছালিক মিয়ার মেয়ে ফাহমিদা আক্তার(১২)। শিশু ফাহমিদা ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার রাজনগর উপজেলার ইসলামপুর গ্রামে খালার বাড়ি বেড়াতে আসে। সে ১৯ জুলাই রোববার নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে নদীর স্রোতে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ হলে পরদিন ২০ জুলাই তার মৃতদেহ নদী থেকে উদ্ধার করা হয়।

রাজনগর থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের বরচেগ গ্রামের মোঃ ছালিক মিয়ার মেয়ে ফাহমিদা আক্তার(১২) গত ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে খালার বাড়ি বেড়াতে আসে। ঘটনার দিন ১৯ জুলাই রোববার দুপুর ১টার দিকে খালাতো বোন রনি বেগম(১২) কে সাথে নিয়ে বাড়ির পাশে লাঘাটা নদীতে সে গোসল করতে যায়। গোসলের এক পর্যায়ে ফাহমিদার পা পিছলে নদীর স্রোতে ভেসে গিয়ে পানিতে ডুবে যায়। তৎক্ষনাৎ সাথে থাকা খালাতো বোন রনি বেগম বাড়িতে গিয়ে খবর দিলে বাড়ির লোকজন দৌড়ে এসে ঘটনাস্থলে ব্যাপক খোঁজাখোঁজি করে তাকে পাননি। খবর পেয়ে মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে গিয়ে অনেক খোঁজাখোঁজি করেও পায়নি। পরদিন ২০ জুলাই সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার সময় স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দুরে পশ্চিম ইসলামপুর গ্রামের স্থানীয় ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিনের বাড়ির পাশে লাঘাটা নদীতে ফাহমিদার মৃতদেহ পানিতে ভাসতে দেখে তার খালার বাড়িতে খবর দেন। পরে খালার বাড়ির লোকজন এসে নদী থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করেন। রাজনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এব্যাপারে রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসিম জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নদীতে নিখোঁজ শিশুটির কোন সন্ধান পায়নি। পরদিন নদীর পানিতে ভাসমান মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে। সুরতহাল শেষে এব্যাপারে অপমৃত্যুর মামলা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •