লকডাউন মানতে কুলাউড়ায় চরম অনীহা, হাটবাজারে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

April 20, 2021, এই সংবাদটি ১৮৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ লকডাউনে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মানতে চরম অনীহা দেখাচ্ছেন কুলাউড়ার সাধারণ মানুষ। নানা অজুহাতে হাট বাজারে লোকজন অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। শুধু মোবাইল কোর্টেও খবর পেলে বা পুলিশের মোবাইল টিম বের হলে তারা সটকে পরেন। এ যেন চোর পুলিশ খেলার মতো।
উপজেলা প্রশাসন অভিযান চালিয়ে ৫০ এর অধিক মামলা ও জরিমানা করার পরও লোকজন অপ্রয়োজনে শহরে বিভিন্ন বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আবার বেশিরভাগ মানুষ সামাজিক দুরত্ব না মেনে মাস্ক ছাড়াই চলাফেরা করেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, ১ এপ্রিল থেকে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত ৮১ জন করোনা টেস্টের নমুনা দিয়েছেন। এ পর্যন্ত করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৬ জন।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, লকডাউনের শুরু থেকেই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক মাইকিং করা হচ্ছে। ২০ এপ্রিল বিকেল ৩টার পর দোকান খোলা রাখা ও গাড়ি-মোটরসাইকেল নিয়ে চলাফেরা করায় মামলা এবং জরিমানা করা হচ্ছে। লকডাউনের প্রথম সপ্তাহে ৫১টি মামলায় ২৫ হাজার ২শ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
উপজেলা সদর, ব্রাহ্মণবাজার, রবিরবাজার ঘুরে দেখা যায়, কাঁচাবাজারসহ নিত্যপণ্যের দোকানে মানুষের প্রচুর ভিড়। কারো মুখে মাস্ক থাকলেও অনেকের মুখে মাক্স নেই। শুধু ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশের উপস্থিতি টের পেলে দোকানের সার্টার বন্ধ করছেন আবার খোলে দিচ্ছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী বলেন, দেশে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু প্রতিদিনই বাড়ছে। লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে মানুষজনকে সচেতন করা হচ্ছে প্রতিদিন। আমরা নিয়মিত অভিযান চালিয়ে মামলা করে জরিমানা আদায় করছি। তার পরও লোকজন নানা অজুহাতে ঘোরাফেরা করছেন। সবাই স্বাস্থ্যবিধি না মানলে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব নয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •