শ্রীমঙ্গলে রাধানগর সড়কে ভাঙন

September 6, 2020, এই সংবাদটি ১৫০ বার পঠিত

তোফায়েল পাপ্পু॥ শ্রীমঙ্গল উপজেলার সদর ইউনিয়নের রাধানগর এলাকায় সড়কে ভাঙন দেখা দেওয়ায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে আশপাশের কয়েক গ্রামের হাজার হাজার মানুষের। সড়কে ভাঙনের ফলে বিঘ্নিত হচ্ছে যান চলাচল, দুর্ঘটনার আশংকাও বিরাজ করছে।

শ্রীমঙ্গল শহর থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত রাধানগর এলাকা। শ্রীমঙ্গল হতে ভানুগাছ যাওয়ার পথে  বাংলাদেশ টি মিউজিয়াম পেড়িয়ে পিচের মুখে অবস্থিত পাঁচ তারকা হোটেল গ্র্যান্ড সুলতান রিসোর্ট এন্ড গল্ফ এর বিপরীত দিকে ভানুগাছ সড়কের ডান পাশ দিয়ে নেমে গেছে রাধানগর সড়কটি। এ রাস্তায় অবস্থান করছে স্বনামধন্য জান্নাতুল ফেরদৌস মসজিদ, এসকেডি আমার বাড়ি, নভেম রিসোর্টসহ ছোট-বড় অনেক পর্যটন নির্ভও প্রতিষ্ঠান। এ রাস্তায় প্রতিদিন নানা প্রয়োজনীয় কাজে শহরের সাথে যোগাযোগ করছেন পার্শবর্তী জেরিন চা বাগান, বিষামণি, মোহাজেরাবাদ, দিলবরনগরসহ বিভিন্ন এলাকার কয়েক হাজার গ্রামবাসী। প্রতিদিন আশা-যাওয়া করছে কয়েক’শ যানবাহন। তথাপীও রাস্তার এই বেহাল অবস্থার সংস্কারে নেই কোন উদ্যোগ।

সম্প্রতি সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, রাস্তাটির অনেক স্থানে ছোট-বড় অনেকগুলো ভাঙন সৃষ্টি হয়েছে। তার মধ্যে রাধানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও এসকেডি আমার বাড়ি রিসোর্ট এর সামনে রাস্তা সংলগ্ন ছড়ার পাড়ে গার্ড ওয়াল না থাকায় রাস্তাটি মারাত্মকভাবে ভেঙে পরেছে। রাস্তাটির যত্র-তত্র ভাঙন আর কাদা-মাটির কারণে স্থানীয়দের পাশাপাশী রীতিমতো বেকায়দায় পরছেন আশপাশের আকর্ষণীয় পর্যটন স্পটগুলোতে বেড়াতে আসা দেশী-বিদেশী পর্যটকরাও।

স্থানীয় বাসিন্দা, শামছুল হক, কাজী আছমা, অনিরুদ্ধ সেনগুপ্ত, সজল দাশ, মামুন খান, মো. আলআমিনসহ আরো অনেকেই জানান, দীর্ঘদিন ধরেই এ রাস্তাটি মেরামত বা সংস্কারের জন্য সরকারিভাবে কোন উদ্যোগ নাই। স্থানীয়ভাবে বেশ কয়েকবার বাঁশ মাটি দিয়ে ভাঙ্গনগুলো অস্থায়ীভাবে মেরামত করা হলেও কিছুদিনের মধ্যেই আবার ভাঙন দেখা দেয়। ফলে এলাকাবাসী পথ চলাচলে চরমভাবে বাধাগ্রস্থ হচ্ছেন। এ ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জরুরী ভিত্তিতে দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন বলে দাবী স্থানীয়দের।

এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভানুলাল রায় বলেন, অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে ছড়ার পানির দ্রুত বেগে রাস্তার মাটি ধসে পরে ভাঙনটি সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি আমাদের নজরে আছে। সরকারিভাবে টেন্ডার না হওয়া পর্যন্ত এই রাস্তায় কাজ শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী সঞ্জয় মোহন সরকার বলেন, রাধানগর এলাকায় রাস্তা ভাঙনের খবরটি আমাদের জানা নেই। তবে খুব শিগগিরই রাস্তাটি পরিদর্শন করে একটি কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •