সাইফুর রহমানের ৯ম মৃত্যু বাষির্কীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফলজ বৃক্ষ রোপন

September 6, 2018, এই সংবাদটি ২৩৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥  সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী,বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমান এর ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শহরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফলজ বৃক্ষ রোপন করে এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ,বাংলাদেশ। বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের আয়োজনে ফলজ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী উদ্বোধন করেন পরিষদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক, মরহুমের জ্যৈষ্ঠ পুত্র সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের সভাপতি বকসি ইকবাল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মু,ইমাদ উদ দীন, সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ হুমায়েদ আলী শাহীন, সৈয়দ আব্দুল কাহের সোহেল, এ্যাডভোকেট হাফিজ আব্দুল আলীম, হোসাইন আহমদ, মো: শেকুল তালুকদার।

উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক এস এম উমেদ আলী, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আলহাজ্ব এম এ মুকিত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: হেলু মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক বকসি মিছবাহ উর রহমান, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, সদর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মো:ফখরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান ফয়ছল আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান, আব্দুল মালিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সৈয়দ সেলিমুল হক, আব্দুল মালিক উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীবৃন্দ, জেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল,স্বেচ্ছাসেবকদল, জাসাস ও কৃষকদলের নেতাকর্মীরা। পৌর এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফলজ বৃক্ষের চারা রোপনে উপস্থিত হওয়ার জন্য স্মৃতি পরিষদের পক্ষ থেকে সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়। বৃক্ষ রোপন শেষে প্রয়াত অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম সাইফুর রহমান রুহের মাগফিরাত, দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়। উল্লেখ্য এম সাইফুর রহমান বানিজ্য মন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী ও একাধিকবার অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী হিসেবে ১২ বার বাজেট পেশ করেন তিনি। উল্লেখ্য ২০০৯ সালের এই দিনে মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ী বাহারমর্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় ব্রাম্মনবাড়িয়া জেলার ঢাকা-সিলেট মহা সড়কের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরন করেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •