১৩ ঘন্টা পর বিদ্যুৎ সরবরাহ কমলগঞ্জে শুষ্ক ঝড়ে বিদ্যুৎ লাইনে ক্ষতি

August 27, 2016,

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥  বৃষ্টিপাত বিহীন বৃহস্পতিবার ২৫ আগষ্ট সন্ধ্যা ছয়টায় কমলগঞ্জে শুষ্ক ঝড়ে গাছ পড়ে বৈদ্যুতিক খুটি ভেঙ্গে, তার ছিড়ে বিদ্যুৎ লাইনের ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়। ক্ষতিগ্রস্ত লাইন মেরামত করে ১৩ ঘন্টা পর শুক্রবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পর্যায়ক্রমে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়।
দিনে প্রচন্ড গরমের পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আকস্মিকভাবে বৃষ্টিপাত ছাড়াই ঘূর্ণিঝড় শুর” হয়। কয়েক মিনিটের স্থায়ী এ ঝড়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গাছ ভেঙ্গে পড়ে ৩৩ হাজার কেভি প্রধান বিদ্যুৎ লাইনরে ক্ষতি হয়। বৈদ্যুতিক খুটি ভেঙ্গে ও তার ছিড়ে বিদ্যুৎ সঞ্চালন ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ে। ঝড়ের শুর” থেকেই পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি (পবিস) কমলগঞ্জ জোনালের অধীন কমলগঞ্জ উপজেলা, রাজনগর ও কুলাউড়া উপজেলার আংশিক মিলিয়ে ৫২ হাজার গ্রাহকের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।
পবিস কমলগঞ্জ জোনালের জুনিয়র প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান জানান, এ ঝড়ে বৃষ্টি না থাকলেও ঘূর্ণায়মান দমকা বাতাসের গতি ছিল খুব বেশী। ফলে কমলগঞ্জ পৌরসভা এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় গাছ পড়ে চারটি বৈদ্যুতিক খুটি ভেঙ্গে গেছে। ৮২টি স্থানে গাছ ভেঙ্গে ৩৩ কেভি বিদ্যুৎ লাইনের উপর পড়ে। এর মাঝে ৪২টি স্থানে তার ও ৮টি স্থানে কস-আপ(তার ও খুটির সাথে কাঠের সংযুক্তি) ভেঙ্গে যায়। ফলে বিদ্যুৎকর্মীরা তারের উপর পড়ে থাকা গাছ সরিয়ে কস-আপ স্থাপন ও খুটি স্থাপন করে ও বিভিন্ন স্থানের ঝুঁকিপূর্ণ কয়েকটি গাছ কেটে সংস্কার কাজ করা হয়।
পবিস কমলগঞ্জ জোনালের ডিজিএম প্রকৌশলী এস এম হাসনাত হাসান বলেন, স্বল্পস্থায়ী ঘূর্ণিঝড় হলেও বিদ্যুৎ লাইনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ের পর থেকেই বিদ্যুৎ কর্মীরা কয়েকটি ভাগে ভাগ হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় কাজ শুরু করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •