হামরকোনায় গর্ভবতী নারীর আত্মহত্যা

October 13, 2013, এই সংবাদটি ২৭৫ বার পঠিত

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের হামরকোনা গ্রামের এক সন্তানের জননী নিলুফার ইয়াসমীন (২৫) আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে। ১৩ অক্টোবর রোববার সকালে চানপুর গ্রামে পেয়ারা গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, হামরকোনা গ্রামের পরিবহন শ্রমিক সুলতান মিয়ার দ্বিতীয় স্ত্রী আত্মহত্যাকারী নিলুফার ইয়াসমীন। প্রথম স্ত্রীর সাথে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে প্রতিনিয়ত ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকে। এই কারনে বেশ কিছু দিন ধরে দ্বিতীয় স্ত্রীকে একই উপজেলার চানপুর গ্রামে তার (সুলতান) ভাগ্নের বাড়িতে রেখেছেন। তার এক পুত্র সন্তান রয়েছে। বর্তমানে সে গর্ভবতী। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। মডেল থানা নিয়ন্ত্রিত শেরপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ নির্মল দেব জানান লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
মৌলভীবাজার সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের হামরকোনা গ্রামের এক সন্তানের জননী নিলুফার ইয়াসমীন (২৫) আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে। ১৩ অক্টোবর রোববার সকালে চানপুর গ্রামে পেয়ারা গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, হামরকোনা গ্রামের পরিবহন শ্রমিক সুলতান মিয়ার দ্বিতীয় স্ত্রী আত্মহত্যাকারী নিলুফার ইয়াসমীন। প্রথম স্ত্রীর সাথে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে প্রতিনিয়ত ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকে। এই কারনে বেশ কিছু দিন ধরে দ্বিতীয় স্ত্রীকে একই উপজেলার চানপুর গ্রামে তার (সুলতান) ভাগ্নের বাড়িতে রেখেছেন। তার এক পুত্র সন্তান রয়েছে। বর্তমানে সে গর্ভবতী। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। মডেল থানা নিয়ন্ত্রিত শেরপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ নির্মল দেব জানান লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •