মৌলভীবাজারে ছাত্রদল নেতার উপড় হামলা : জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়কের বিরুদ্ধে মামলা

November 1, 2013, এই সংবাদটি ২৬৬ বার পঠিত

মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি সভাপতি এম. নাসের রহমান গ্রুপের ছাত্রনেতা ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রেজাউর রহমান (৩২) কে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাকির হোসেন উজ্জ্বল, যুগ্ন-আহ্বায়ক তপোধীর রায় বুরন, গাজী মারুফ, ওয়ার্ড কাউন্সিলর স্বাগত কিশোর দাশ চৌধুরী, শিবলু আহমদসহ জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক বেগম খালেদা রব্বানী সমর্থিত গ্রুপের অজ্ঞাতনামা ৮-১০জন ছাত্রদল নেতাকর্মীকে অভিযুক্ত করে মামলা করেছেন আহতের বড় ভাই সাইফুর রহমান সুমন।
ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক বাবর খাঁন জানান, গত ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাত এগারোটার দিকে শহরের কোর্ট এলাকায় রেজা ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে বসে গল্প করছিলেন। এমন সময় বেশকিছু দুর্বৃত্ত কয়েকটি প্রাইভেট কারযোগে এসে দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে অতকির্তভাবে রেজার উপর হামলা করে। এসময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে জখম করে। ভাংচুর চালানো হয় ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে। এসময় ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক সাবের আহমদও হালকা আহত হন। আহতদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্ত্তি করে।
মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (তদন্ত) মোঃ আবদুল হাই চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক করা যায়নি।
এব্যাপারে জেলা ছাত্রদলের অভিযুক্ত পক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা সাংবাদিকদের জানান, রাজনৈতিকভাবে ঘায়েল করতে তাদের দায়ী করে মামলা দেয়া হয়েছে।
অপর একটি সত্রে জানা যায়, ছাত্রদল নেতা সাগর আহমদ (২৫) কে প্রথমে জগ্ননাথপুর এলাকায় দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে সন্ত্রাসীরা। এরই জের ধরে পরবর্তীতে পাল্টা হামলা হয়।
মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি সভাপতি এম. নাসের রহমান গ্রুপের ছাত্রনেতা ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রেজাউর রহমান (৩২) কে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাকির হোসেন উজ্জ্বল, যুগ্ন-আহ্বায়ক তপোধীর রায় বুরন, গাজী মারুফ, ওয়ার্ড কাউন্সিলর স্বাগত কিশোর দাশ চৌধুরী, শিবলু আহমদসহ জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক বেগম খালেদা রব্বানী সমর্থিত গ্রুপের অজ্ঞাতনামা ৮-১০জন ছাত্রদল নেতাকর্মীকে অভিযুক্ত করে মামলা করেছেন আহতের বড় ভাই সাইফুর রহমান সুমন।
ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক বাবর খাঁন জানান, গত ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাত এগারোটার দিকে শহরের কোর্ট এলাকায় রেজা ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে বসে গল্প করছিলেন। এমন সময় বেশকিছু দুর্বৃত্ত কয়েকটি প্রাইভেট কারযোগে এসে দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে অতকির্তভাবে রেজার উপর হামলা করে। এসময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে জখম করে। ভাংচুর চালানো হয় ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে। এসময় ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক সাবের আহমদও হালকা আহত হন। আহতদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্ত্তি করে।
মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (তদন্ত) মোঃ আবদুল হাই চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক করা যায়নি।
এব্যাপারে জেলা ছাত্রদলের অভিযুক্ত পক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা সাংবাদিকদের জানান, রাজনৈতিকভাবে ঘায়েল করতে তাদের দায়ী করে মামলা দেয়া হয়েছে।
অপর একটি সত্রে জানা যায়, ছাত্রদল নেতা সাগর আহমদ (২৫) কে প্রথমে জগ্ননাথপুর এলাকায় দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে সন্ত্রাসীরা। এরই জের ধরে পরবর্তীতে পাল্টা হামলা হয়। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •