আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জেলার চারটি আসনে সম্ভাব্য প্রার্থী

November 18, 2013, এই সংবাদটি ৭৩১ বার পঠিত

মৌলভীবাজার জেলার চারটি সংসদীয় আসন থেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে প্রার্থীরা জোরেসুরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ইতো মধ্যে প্রার্থীরা নিজ এলাকায় গত কয়েকটি ঈদ, পূজা ও নববর্ষকে সামনে রেখে দোয়া-শুভেচ্ছা ও স্বাগমত সম্বলিত বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেষ্টুন ও পোষ্টার টাঙ্গিয়ে প্রার্থীতা জানান দিয়েছেন। তবে সম্প্রতি প্রবাস থেকে লভিং শেষে আরো কয়েকজন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে নেমেছেন।
মৌলভীবাজার জেলার আয়তন ২৬৮২.২৯ বর্গ কিলোমিটার। এতে উপজেলা রয়েছে ৭টি। ২০১৩ সালের ৩০ অক্টোবরের হিসেব অনুযায়ী মোট ভোটার সংখ্যা ১১লক্ষ ৪৪ হাজার ৮শত ৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লক্ষ ৭১ হাজার ৮শত ২০ জন ও মহিলা ভোটার ৫ লক্ষ ৭২ হাজার ৯ শত ৮৩ জন। জেলায় জাতীয় সংসদের নির্বাচনী আসন রয়েছে ৪টি।

নির্বাচনী এলাকা-২৩৫ মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী):
বড়লেখা উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১০, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৫৭, ভোটকক্ষের সংখ্যা ২৬৬, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৭১৩৭৪, মহিলা ৭৫২০৭, মোট ১৪৬৫৮১।
জুড়ী উপজেলা, ইউনিয়নের সংখ্যা ৬, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৩৮, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৬৮, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৪৩৩৫৩ জন, মহিলা ৪২৪৩৫ জন, মোট ৮৫৭৮৮ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৩২৩৬৯ জন।
এ পর্যন্ত এ আসনে আওয়ামীলীগ ৫ বার, বিএনপি ২ বার এবং জাতীয় পার্টি ২ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে সিরাজুল ইসলাম (১৯৭৩ ও ১৯৭৯), ইমান উদ্দিন আহমদ (১৯৯৬), মোঃ শাহাব উদ্দিন (১৯৯৬ ও ২০০৮) বিএনপি থেকে এবাদুর রহমান চৌধুরী (২০০১ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) জাতীয় পাটি থেকে এবাদুর রহমান চৌধুরী (১৯৮৮ ও ১৯৯১) ।
আওয়ামীলীগঃ
সাহাব উদ্দিন আহমদ: গত ২ বারের নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য সাহাব উদ্দিন আহমদ আওয়ামীগের মনোনয়নে আগামী নির্বচনে প্রতিদন্ধিতা করবেন।
এম এ মোহাইমিন সালেহ : ঢাকার বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী, শিল্পপতি, আটাব সভাপতি এম এ মোহাইমিন সালেহ নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় জনসংযোগ এবং কেন্দ্রের সাথে জোর লভিং করেছেন প্রার্থী হওয়ার জন্য।
বিএনপিঃ
এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী: মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক প্রতিমন্ত্রী বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী। তিনি বড়লেখা জুড়ী এলাকার ঘন ঘন সভা-সমাবেশ, মিটিং, সামাজিক কর্মকান্ডে এবং কমিটি নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।
শরিফুল হক সাজু: কাতার প্রবাসী তরুণ ব্যবসায়ী শরিফুল হক সাজু কেন্দ্রিয় যুবদলের সহ আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইতিমধ্যে তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে ভোটারদের জানান দিয়েছেন।
দারাদ আহমদ : জাপান প্রবাসী দারাদ আহমদ বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি বড়লেখা উপজেলা বিএনপি একাংশের সভাপতি। প্রার্থী হিসেবে জানান দিতে অনেক আগেই নির্বাচনী আসনে অর্ধ শতাধিক ডিজিটাল বিলবোর্ড ও ব্যানার স্থাপন করেছেন।
জাতীয় পার্টিঃ
অ্যাড. মাহবুল আলম শামীমঃ এ আসন থেকে অ্যাড. মাহবুল আলম শামীম জাতীয় পার্টি মনোনয়নে নির্বাচন করতে প্রচার প্রচারণা করছেন। তিনি জুড়ী উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক।
অ্যাড. মোস্তাফা কামাল : লন্ডন প্রবাসী অ্যাড. মোস্তাফা কামাল জাতীয় পার্টির টিকেটে নির্বাচন করতে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন। বিগত ৩ বছর থেকে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে ব্যানার, পোষ্টার ও ফেষ্টুনসহ সভা সমাবেশ ও সামাজিক সংগঠনে কাজ করছেন।
আহমেদ রিয়াজ : কাতার প্রবাসী আহমেদ রিয়াজ জাতীয় পার্টির একক প্রার্থী, কখনও সমন্বয়ক, আবার কখনও উপজেলা সভাপতি কিংবা কেন্দ্রিয় সেচ্ছাসেবক পার্টির আর্ন্তজাতিক সম্পাদক উল্লেখ করে এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বি হিসেবে প্রচারনা চালাচ্ছেন

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৬ মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া ও কমলগঞ্জ আংশিক):
কুলাউড়া পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১৩, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৯২, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪০৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ১০৬৪৩৭ জন, মহিলা ১০৪৭৪৬ জন, মোট ২১১১৮৩ জন।
কমলগঞ্জ উপজেলা আংশিক, ইউনিয়নের সংখ্যা ৪, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২৯, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩৮, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৩৪২৭১ জন, মহিলা ৩৫৬৪২ জন, মোট ৬৯৯১৩ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৮,১০৯৬ জন।
এ আসনে আওয়ামীলীগ ৩ বার, জাতীয় পার্টি ৩ বার, বিএনপি ১ বার, মুসলিমলীগ ১ বার, স্বতন্ত্র ১বার নির্বাচিত হন। আওয়ামীলীগ থেকে আঃ মোস্তাকিম চৌধুরী (১৯৭৩), আঃ জব্বার (১৯৭৯), সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ (১৯৯৬), জাতীয় পাটি থেকে নবাব আলী আব্বাস খান (১৯৯১ ও ২০০৮) মুসলিম লীগ থেকে এ এন এম ইউসুফ (১৯৮৬), বিএনপি থেকে এম এ শাহীন (১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) স্বতন্ত্র এম এ শাহীন (২০০১)।
জাতীয় পার্টিঃ
নবাব আলী আব্বাস খানঃ বর্তমান সংসদ সদস্য মহাজোট প্রার্থী জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাস খান নির্বাচিত হন। জাতীয় পার্টি এবার যদি মহাজোট থেকে নির্বাচন করে তবে নবাব আলী আব্বাস খানের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভবনা বেশী।
আওয়ামীলীগঃ
সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ : ডাকসুর সাবেক ভিপি, আওয়ামীলীগের সাবেক নেতা সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ মনোনয় পাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। গত নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন না পেলেও মাঠ ছাড়েননি সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ। দলীয় মনোনয়ন না পেলে শোনা যাচ্ছে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মৌলভীবাজারের একাধিক আসনে নির্বাচন করবেন।
আতাউর রহমান শামীম : যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আওয়ামীলীগ নেতা আতাউর রহমান শামীম আওয়ামীলীগের মনোনয় পাওয়ার জন্য কাজ করছেন।
বিএনপিঃ
এম এম শাহীন : সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহীন, বিএনপির মনোনয়ন লাভের জন্য জোর তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। গত নির্বাচনের পর থেকে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে মাঠে কাজ করছেন।
এডভোকেট আবেদ রাজা : বিএনপি কেন্দ্র কমিটির সদস্য এডভোকেট আবেদ রাজা জোর লবিং করে যাচ্ছেন। গত সংসদ নির্বাচনে প্রতিদন্ধিতা করে হেরেছেন এ আসনে। এর পর থেকে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে মাঠকে গরম করে রেখেছেন।

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৭ মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজার ও রাজনগর) :
মৌলভীবাজার সদরঃ পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১২, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৩, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪৩০, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ১০৫২২৩ জন, মহিলা ১০২৯৯০ জন, মোট ২০৮২১৩ জন।
রাজনগরঃ ইউনিয়নের সংখ্যা ৮, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৬৩, ভোটকক্ষের সংখ্যা ২৫৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৬৯১০৭ জন, মহিলা ৭০৫৭৪ জন, মোট ১৩৯৬৮১ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ৩৪৭৮৯৪ জন। এ আসনে আওয়ামীলীগ ৪ বার, বিএনপি ৪ বার, জাতীয় পার্টি থেকে ১ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে তৈয়োবুর রহিম (১৯৭৩), আজিজুর রহমান (১৯৮৬ ও ১৯৯১) সৈয়দ মহসীন আলী (২০০৮) বিএনপি থেকে এম সাইফুর রহমান (১৯৭৯, ১৯৯৬ ১৫ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৬ ও ২০০১)।
আওয়ামীলীগঃ
সৈয়দ মহসীন আলী : আওয়ামীলীগ থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য সৈয়দ মহসীন আলী আগামী জাতীয় সংসদ প্রার্থী। গত নির্বাচনে তিনি সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানকে প্রতিদন্ধিতা করে বিজয়ী হন। নেছার আহমদ : জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নেছার আহমদ আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইতিমধ্যে তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে ভোটারদের মধ্যে জানান দিয়েছেন।
এম এ রহিম শহীদঃ যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম এ রহিম শহীদ আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়নের জন্য জোর তদবির করে যাচ্ছেন। তার সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুসম্পর্কের জনশ্রুতি রয়েছে। তিনি প্রবাসে থাকলেও ঘনঘন দেশে আসেন এবং সভা সমাবেশ করেন। তিনিও অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে ভোটারদের মধ্যে জানান দিয়েছেন।
বিএনপিঃ
এম নাসের রহমান : সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের পুত্র, জেলা বিএনপির মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন।
মুহিদুর রহমান : বিএনপির আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক যুক্তরাজ্য প্রবাসী মুহিদুর রহমান এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।
মোঃ ফয়জুল করিম মযূন : জেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ ফয়জুল করিম মযূন এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।
জাতীয় পার্টিঃ
সৈয়দ সাহাব উদ্দিন আহমদ : এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাহাব উদ্দিন আহমদ প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।
সৈয়দ নুরুল হক: যুক্তরাজ্য প্রবাসী সৈয়দ নুরুল হক এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৮ মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ):
শ্রীমঙ্গল উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ৯, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৭৯, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪৪৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৯৮৫৭০ জন, মহিলা ৯৭৫৫০ জন, মোট ১৯৬১২০ জন।
কমলগঞ্জ উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ৫, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৪১, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৮০, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৪৩৪৮৫, মহিলা ৪৩৮৩৯, মোট ৮৭৩২৪। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৮৩৪৪৪ জন।
এ আসনে আওয়ামীলীগ ৭ বার, বিএনপি ১ বার এবং জাতীয় পার্টি ১ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে আলতাফুর রহমান (১৯৭৩), মোঃ ইলিয়াছ (১৯৭৯ ও ১৯৯৬), উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ (১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০০৮) বিএনপি থেকে মোঃ শফিকুর রহমান (১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) জাতীয় পাটি থেকে আহাদ মিয়া (১৯৮৮)।
আওয়ামীলীগঃ
উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ: বর্তমান সংসদ সদস্য ও সরকার দলীয় চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ আওয়ামীলীগ থেকে একমাত্র প্রার্থী হিসেবে তালিকায় রয়েছেন।
রনধীর কুমার দেবঃ শ্রীমঙ্গল উপজেলা চেয়ারম্যান ও হিন্দু বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা রনধীর কুমার দেব এ আসন থেকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে জোর তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন।
বিএনপিঃ
মুজিবুর রহমান চৌধুরীঃ বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে মুজিবুর রহমান চৌধুরী এ আসন থেকে প্রতিধন্ধিতা করবেন। তিনি এর আগেও এ আসন থেকে প্রতিধন্ধিতা করেছেন।
নুরে আলম হামিদীঃ যুক্তরাজ্যা প্রবাসী ও আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলামের নেতা এ আসন থেকে ১৮ দলীয় জোটের হয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে প্রচারণা করছেন।
জাতীয় পাটির:
মোঃ কামাল হোসেনঃ শ্রীমঙ্গল উজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে প্রচারণা করছেন। #
মৌলভীবাজার জেলার চারটি সংসদীয় আসন থেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে প্রার্থীরা জোরেসুরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ইতো মধ্যে প্রার্থীরা নিজ এলাকায় গত কয়েকটি ঈদ, পূজা ও নববর্ষকে সামনে রেখে দোয়া-শুভেচ্ছা ও স্বাগমত সম্বলিত বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেষ্টুন ও পোষ্টার টাঙ্গিয়ে প্রার্থীতা জানান দিয়েছেন। তবে সম্প্রতি প্রবাস থেকে লভিং শেষে আরো কয়েকজন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে নেমেছেন।
মৌলভীবাজার জেলার আয়তন ২৬৮২.২৯ বর্গ কিলোমিটার। এতে উপজেলা রয়েছে ৭টি। ২০১৩ সালের ৩০ অক্টোবরের হিসেব অনুযায়ী মোট ভোটার সংখ্যা ১১লক্ষ ৪৪ হাজার ৮শত ৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লক্ষ ৭১ হাজার ৮শত ২০ জন ও মহিলা ভোটার ৫ লক্ষ ৭২ হাজার ৯ শত ৮৩ জন। জেলায় জাতীয় সংসদের নির্বাচনী আসন রয়েছে ৪টি।

নির্বাচনী এলাকা-২৩৫ মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী):
বড়লেখা উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১০, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৫৭, ভোটকক্ষের সংখ্যা ২৬৬, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৭১৩৭৪, মহিলা ৭৫২০৭, মোট ১৪৬৫৮১।
জুড়ী উপজেলা, ইউনিয়নের সংখ্যা ৬, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৩৮, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৬৮, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৪৩৩৫৩ জন, মহিলা ৪২৪৩৫ জন, মোট ৮৫৭৮৮ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৩২৩৬৯ জন।
এ পর্যন্ত এ আসনে আওয়ামীলীগ ৫ বার, বিএনপি ২ বার এবং জাতীয় পার্টি ২ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে সিরাজুল ইসলাম (১৯৭৩ ও ১৯৭৯), ইমান উদ্দিন আহমদ (১৯৯৬), মোঃ শাহাব উদ্দিন (১৯৯৬ ও ২০০৮) বিএনপি থেকে এবাদুর রহমান চৌধুরী (২০০১ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) জাতীয় পাটি থেকে এবাদুর রহমান চৌধুরী (১৯৮৮ ও ১৯৯১) ।
আওয়ামীলীগঃ
সাহাব উদ্দিন আহমদ: গত ২ বারের নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য সাহাব উদ্দিন আহমদ আওয়ামীগের মনোনয়নে আগামী নির্বচনে প্রতিদন্ধিতা করবেন।
এম এ মোহাইমিন সালেহ : ঢাকার বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী, শিল্পপতি, আটাব সভাপতি এম এ মোহাইমিন সালেহ নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় জনসংযোগ এবং কেন্দ্রের সাথে জোর লভিং করেছেন প্রার্থী হওয়ার জন্য।
বিএনপিঃ
এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী: মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক প্রতিমন্ত্রী বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী। তিনি বড়লেখা জুড়ী এলাকার ঘন ঘন সভা-সমাবেশ, মিটিং, সামাজিক কর্মকান্ডে এবং কমিটি নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।
শরিফুল হক সাজু: কাতার প্রবাসী তরুণ ব্যবসায়ী শরিফুল হক সাজু কেন্দ্রিয় যুবদলের সহ আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইতিমধ্যে তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে ভোটারদের জানান দিয়েছেন।
দারাদ আহমদ : জাপান প্রবাসী দারাদ আহমদ বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি বড়লেখা উপজেলা বিএনপি একাংশের সভাপতি। প্রার্থী হিসেবে জানান দিতে অনেক আগেই নির্বাচনী আসনে অর্ধ শতাধিক ডিজিটাল বিলবোর্ড ও ব্যানার স্থাপন করেছেন।
জাতীয় পার্টিঃ
অ্যাড. মাহবুল আলম শামীমঃ এ আসন থেকে অ্যাড. মাহবুল আলম শামীম জাতীয় পার্টি মনোনয়নে নির্বাচন করতে প্রচার প্রচারণা করছেন। তিনি জুড়ী উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক।
অ্যাড. মোস্তাফা কামাল : লন্ডন প্রবাসী অ্যাড. মোস্তাফা কামাল জাতীয় পার্টির টিকেটে নির্বাচন করতে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন। বিগত ৩ বছর থেকে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে ব্যানার, পোষ্টার ও ফেষ্টুনসহ সভা সমাবেশ ও সামাজিক সংগঠনে কাজ করছেন।
আহমেদ রিয়াজ : কাতার প্রবাসী আহমেদ রিয়াজ জাতীয় পার্টির একক প্রার্থী, কখনও সমন্বয়ক, আবার কখনও উপজেলা সভাপতি কিংবা কেন্দ্রিয় সেচ্ছাসেবক পার্টির আর্ন্তজাতিক সম্পাদক উল্লেখ করে এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বি হিসেবে প্রচারনা চালাচ্ছেন

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৬ মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া ও কমলগঞ্জ আংশিক):
কুলাউড়া পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১৩, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৯২, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪০৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ১০৬৪৩৭ জন, মহিলা ১০৪৭৪৬ জন, মোট ২১১১৮৩ জন।
কমলগঞ্জ উপজেলা আংশিক, ইউনিয়নের সংখ্যা ৪, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২৯, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩৮, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৩৪২৭১ জন, মহিলা ৩৫৬৪২ জন, মোট ৬৯৯১৩ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৮,১০৯৬ জন।
এ আসনে আওয়ামীলীগ ৩ বার, জাতীয় পার্টি ৩ বার, বিএনপি ১ বার, মুসলিমলীগ ১ বার, স্বতন্ত্র ১বার নির্বাচিত হন। আওয়ামীলীগ থেকে আঃ মোস্তাকিম চৌধুরী (১৯৭৩), আঃ জব্বার (১৯৭৯), সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ (১৯৯৬), জাতীয় পাটি থেকে নবাব আলী আব্বাস খান (১৯৯১ ও ২০০৮) মুসলিম লীগ থেকে এ এন এম ইউসুফ (১৯৮৬), বিএনপি থেকে এম এ শাহীন (১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) স্বতন্ত্র এম এ শাহীন (২০০১)।
জাতীয় পার্টিঃ
নবাব আলী আব্বাস খানঃ বর্তমান সংসদ সদস্য মহাজোট প্রার্থী জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাস খান নির্বাচিত হন। জাতীয় পার্টি এবার যদি মহাজোট থেকে নির্বাচন করে তবে নবাব আলী আব্বাস খানের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভবনা বেশী।
আওয়ামীলীগঃ
সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ : ডাকসুর সাবেক ভিপি, আওয়ামীলীগের সাবেক নেতা সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ মনোনয় পাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। গত নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন না পেলেও মাঠ ছাড়েননি সুলতান মোঃ মনসুর আহমদ। দলীয় মনোনয়ন না পেলে শোনা যাচ্ছে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মৌলভীবাজারের একাধিক আসনে নির্বাচন করবেন।
আতাউর রহমান শামীম : যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আওয়ামীলীগ নেতা আতাউর রহমান শামীম আওয়ামীলীগের মনোনয় পাওয়ার জন্য কাজ করছেন।
বিএনপিঃ
এম এম শাহীন : সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহীন, বিএনপির মনোনয়ন লাভের জন্য জোর তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। গত নির্বাচনের পর থেকে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে মাঠে কাজ করছেন।
এডভোকেট আবেদ রাজা : বিএনপি কেন্দ্র কমিটির সদস্য এডভোকেট আবেদ রাজা জোর লবিং করে যাচ্ছেন। গত সংসদ নির্বাচনে প্রতিদন্ধিতা করে হেরেছেন এ আসনে। এর পর থেকে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে মাঠকে গরম করে রেখেছেন।

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৭ মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজার ও রাজনগর) :
মৌলভীবাজার সদরঃ পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ১২, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৩, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪৩০, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ১০৫২২৩ জন, মহিলা ১০২৯৯০ জন, মোট ২০৮২১৩ জন।
রাজনগরঃ ইউনিয়নের সংখ্যা ৮, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৬৩, ভোটকক্ষের সংখ্যা ২৫৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৬৯১০৭ জন, মহিলা ৭০৫৭৪ জন, মোট ১৩৯৬৮১ জন। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ৩৪৭৮৯৪ জন। এ আসনে আওয়ামীলীগ ৪ বার, বিএনপি ৪ বার, জাতীয় পার্টি থেকে ১ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে তৈয়োবুর রহিম (১৯৭৩), আজিজুর রহমান (১৯৮৬ ও ১৯৯১) সৈয়দ মহসীন আলী (২০০৮) বিএনপি থেকে এম সাইফুর রহমান (১৯৭৯, ১৯৯৬ ১৫ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৬ ও ২০০১)।
আওয়ামীলীগঃ
সৈয়দ মহসীন আলী : আওয়ামীলীগ থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য সৈয়দ মহসীন আলী আগামী জাতীয় সংসদ প্রার্থী। গত নির্বাচনে তিনি সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানকে প্রতিদন্ধিতা করে বিজয়ী হন। নেছার আহমদ : জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নেছার আহমদ আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইতিমধ্যে তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে ভোটারদের মধ্যে জানান দিয়েছেন।
এম এ রহিম শহীদঃ যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম এ রহিম শহীদ আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়নের জন্য জোর তদবির করে যাচ্ছেন। তার সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুসম্পর্কের জনশ্রুতি রয়েছে। তিনি প্রবাসে থাকলেও ঘনঘন দেশে আসেন এবং সভা সমাবেশ করেন। তিনিও অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে ভোটারদের মধ্যে জানান দিয়েছেন।
বিএনপিঃ
এম নাসের রহমান : সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের পুত্র, জেলা বিএনপির মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন।
মুহিদুর রহমান : বিএনপির আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক যুক্তরাজ্য প্রবাসী মুহিদুর রহমান এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।
মোঃ ফয়জুল করিম মযূন : জেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ ফয়জুল করিম মযূন এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।
জাতীয় পার্টিঃ
সৈয়দ সাহাব উদ্দিন আহমদ : এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাহাব উদ্দিন আহমদ প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।
সৈয়দ নুরুল হক: যুক্তরাজ্য প্রবাসী সৈয়দ নুরুল হক এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি ব্যানার ফেষ্টুনের মাধ্যমে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

নির্বাচনী এলাকার নাম-২৩৮ মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ):
শ্রীমঙ্গল উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ৯, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৭৯, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৪৪৪, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৯৮৫৭০ জন, মহিলা ৯৭৫৫০ জন, মোট ১৯৬১২০ জন।
কমলগঞ্জ উপজেলা, পৌরসভা ১টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ৫, ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৪১, ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৮০, ভোটার সংখ্যা-পুরুষ ৪৩৪৮৫, মহিলা ৪৩৮৩৯, মোট ৮৭৩২৪। এ আসনে সর্ব মোট ভোটার সংখ্যা ২৮৩৪৪৪ জন।
এ আসনে আওয়ামীলীগ ৭ বার, বিএনপি ১ বার এবং জাতীয় পার্টি ১ বার জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ থেকে আলতাফুর রহমান (১৯৭৩), মোঃ ইলিয়াছ (১৯৭৯ ও ১৯৯৬), উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ (১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০০৮) বিএনপি থেকে মোঃ শফিকুর রহমান (১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬) জাতীয় পাটি থেকে আহাদ মিয়া (১৯৮৮)।
আওয়ামীলীগঃ
উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ: বর্তমান সংসদ সদস্য ও সরকার দলীয় চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ আওয়ামীলীগ থেকে একমাত্র প্রার্থী হিসেবে তালিকায় রয়েছেন।
রনধীর কুমার দেবঃ শ্রীমঙ্গল উপজেলা চেয়ারম্যান ও হিন্দু বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা রনধীর কুমার দেব এ আসন থেকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে জোর তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন।
বিএনপিঃ
মুজিবুর রহমান চৌধুরীঃ বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে মুজিবুর রহমান চৌধুরী এ আসন থেকে প্রতিধন্ধিতা করবেন। তিনি এর আগেও এ আসন থেকে প্রতিধন্ধিতা করেছেন।
নুরে আলম হামিদীঃ যুক্তরাজ্যা প্রবাসী ও আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলামের নেতা এ আসন থেকে ১৮ দলীয় জোটের হয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে প্রচারণা করছেন।
জাতীয় পাটির:
মোঃ কামাল হোসেনঃ শ্রীমঙ্গল উজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি অসংখ্য ব্যানার ফেষ্টুন মাধ্যমে প্রচারণা করছেন। # স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •