উন্নয়ন উদ্যোগ: মণিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা : কমলগঞ্জে মণিপুরী ভাষা ও বর্ণমালা বিষয়ক মণিপুরী মুসলিম সমাবেশ

October 18, 2013, এই সংবাদটি ৪৬৫ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মণিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে মণিপুরী ভাষা ও বর্ণমালা বিষয়ক মুণিপুরী মুসলিম সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৭ অক্টোবর বৃহষ্পতিবার আদমপুর তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক মিলনায়তনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কর্ণেল (অব:) মো: সালেহ্ আ‏া‏হ্ম্াদ। মণিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কবি এ, কে, শেরামের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদুল হক স্বপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মেজর মো: বশির আহমেদ চৌধুরী, তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মতিন। আলোচনায় অংশ নেন প্রধান শিক্ষক মো: খুরশেদ আলী, সাহাব উদ্দিন, সাবেক ব্যাংকার মো: আব্দুস সামাদ, থাইল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো: রফিকুল ইসলাম, ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শামীম আহমদ, চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো: আব্দুল্লাহ, সিলেট এমসি কলেজের ছাত্র তমিজুর রহমান, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রাসেল আহমেদ প্রমুখ। দিনব্যাপী কর্মশালায় বক্তারা বলেন, পৃথিবীতে অবিরত অনেকগুলো ভাষা বিলুপ্ত হচ্ছে। এরকম যাতে মণিপুরী ভাষা হারিয়ে না যায়, সেজন্য মণিপুরী বর্ণমালা শেখার উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। অভিভাবরা নিজ নিজ সন্তানদেরকে যাতে মণিপুরী বর্ণমালা শেখানো যায় সেজন্য উপস্থিত সকলকে কবি এ, কে, শেরাম রচিত “মণিপুরী লিপি” পরিচিতিমূলক বই বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, মৈতৈ মণিপুরী এবং মণিপুরী মুসলিম উভয় জাতি সত্ত্বার লোকজন এই মণিপুরী ভাষায় কথা বলেন।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মণিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে মণিপুরী ভাষা ও বর্ণমালা বিষয়ক মুণিপুরী মুসলিম সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৭ অক্টোবর বৃহষ্পতিবার আদমপুর তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক মিলনায়তনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কর্ণেল (অব:) মো: সালেহ্ আ‏া‏হ্ম্াদ। মণিপুরী ভাষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কবি এ, কে, শেরামের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদুল হক স্বপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মেজর মো: বশির আহমেদ চৌধুরী, তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মতিন। আলোচনায় অংশ নেন প্রধান শিক্ষক মো: খুরশেদ আলী, সাহাব উদ্দিন, সাবেক ব্যাংকার মো: আব্দুস সামাদ, থাইল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো: রফিকুল ইসলাম, ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শামীম আহমদ, চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো: আব্দুল্লাহ, সিলেট এমসি কলেজের ছাত্র তমিজুর রহমান, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রাসেল আহমেদ প্রমুখ। দিনব্যাপী কর্মশালায় বক্তারা বলেন, পৃথিবীতে অবিরত অনেকগুলো ভাষা বিলুপ্ত হচ্ছে। এরকম যাতে মণিপুরী ভাষা হারিয়ে না যায়, সেজন্য মণিপুরী বর্ণমালা শেখার উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। অভিভাবরা নিজ নিজ সন্তানদেরকে যাতে মণিপুরী বর্ণমালা শেখানো যায় সেজন্য উপস্থিত সকলকে কবি এ, কে, শেরাম রচিত “মণিপুরী লিপি” পরিচিতিমূলক বই বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, মৈতৈ মণিপুরী এবং মণিপুরী মুসলিম উভয় জাতি সত্ত্বার লোকজন এই মণিপুরী ভাষায় কথা বলেন। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •