পুলিশ কনস্টেবল নজরুল নারী ও শিশু নির্যাতনের মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন

October 17, 2013, এই সংবাদটি ২৫২ বার পঠিত

অবশেষে পুলিশ কনস্টেবল নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে রুজু করা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা মিথ্যা বলে প্রমান হল। সম্প্রতি বিজ্ঞ আদালত মামলার দায় হতে তাকে অব্যাহতি প্রদান করেন। ওই মামলার কারনে তিন বছর আগে তিনি চাকরী হতে সাময়িক বরখাস্ত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করেন। জানা গেছে, বড়লেখা উপজেলার শেওরা ডিগা গ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের কনিষ্ট ছেলে পুলিশ কনস্টেবল নজরুল ইসলাম (কং-১১৪৩) ২০১০ সালে বান্দরবান জেলার পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন। এসময় বিয়ানীবাজারের জনৈক মহিলা সুজি বেগম সিলেট জজ কোর্টে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেন (মামলা নং-২৩৫/১০)। মামলার খবর জেনে তিনি আদালতে আত্মসমর্পন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরন করেন। ওই মামলার কারনে বান্দরবানের পুলিশ সুপার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। প্রায় সাড়ে তিনমাস কারাভোগের পর জামিন লাভ করেন। তিন বছর মামলার ঘানি টেনে অবশেষে আদালত মামলার দায় হতে পুলিশ কনস্টেবল নজরুলকে অব্যাহতি প্রদান করেন। নজরুল ইসলাম জানান, যে মামলায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় আদালত সে মামলা হতে তাকে অব্যাহতি প্রদান করায় প্রমান হল তিনি নির্দোষ। তাই তার বিরুদ্ধে পুলিশ বিভাগের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহারের দাবী জানান।
অবশেষে পুলিশ কনস্টেবল নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে রুজু করা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা মিথ্যা বলে প্রমান হল। সম্প্রতি বিজ্ঞ আদালত মামলার দায় হতে তাকে অব্যাহতি প্রদান করেন। ওই মামলার কারনে তিন বছর আগে তিনি চাকরী হতে সাময়িক বরখাস্ত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করেন। জানা গেছে, বড়লেখা উপজেলার শেওরা ডিগা গ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের কনিষ্ট ছেলে পুলিশ কনস্টেবল নজরুল ইসলাম (কং-১১৪৩) ২০১০ সালে বান্দরবান জেলার পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন। এসময় বিয়ানীবাজারের জনৈক মহিলা সুজি বেগম সিলেট জজ কোর্টে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেন (মামলা নং-২৩৫/১০)। মামলার খবর জেনে তিনি আদালতে আত্মসমর্পন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরন করেন। ওই মামলার কারনে বান্দরবানের পুলিশ সুপার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। প্রায় সাড়ে তিনমাস কারাভোগের পর জামিন লাভ করেন। তিন বছর মামলার ঘানি টেনে অবশেষে আদালত মামলার দায় হতে পুলিশ কনস্টেবল নজরুলকে অব্যাহতি প্রদান করেন। নজরুল ইসলাম জানান, যে মামলায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় আদালত সে মামলা হতে তাকে অব্যাহতি প্রদান করায় প্রমান হল তিনি নির্দোষ। তাই তার বিরুদ্ধে পুলিশ বিভাগের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহারের দাবী জানান। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •