এম এম শাহীনের নেতৃত্বে কুলাউড়ায় বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

October 31, 2013, এই সংবাদটি ১০০ বার পঠিত

নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ও বিএনপি সহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের হত্যা এবং মিথ্যা মামলা দায়ের ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা এম এম শাহীনের নেতৃত্বে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্টিত হয়। ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপরে বিক্ষোভ মিছিল কুলাউড়া শহরের বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে স্বাধীনতা স্মৃতি সৌধ চত্ত্বরে গিয়ে সমাবেশ করে। কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাচ্চুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এম এম শাহীন। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্ত্যব্য রাখেন বিএনপি নেতা রেদওয়ান খান, বদরুজ্জামান সজল, সৈয়দ তফজ্জুল হোসেন প্রমুখ। বক্তরা বলেন, নির্দলীয় তত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে নিবার্চন হতে দেয়া হবে না। আন্দোলণ সংগ্রামের মাধ্যমে নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকার গঠন করে নিবার্চন দিতে বাধ্য করা হবে। আর তা না হলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ক্ষমতার মসনদ থেকে নামাতে বাধ্য হবে বিরোধীদল।
নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ও বিএনপি সহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের হত্যা এবং মিথ্যা মামলা দায়ের ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা এম এম শাহীনের নেতৃত্বে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্টিত হয়। ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপরে বিক্ষোভ মিছিল কুলাউড়া শহরের বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে স্বাধীনতা স্মৃতি সৌধ চত্ত্বরে গিয়ে সমাবেশ করে। কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাচ্চুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এম এম শাহীন। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্ত্যব্য রাখেন বিএনপি নেতা রেদওয়ান খান, বদরুজ্জামান সজল, সৈয়দ তফজ্জুল হোসেন প্রমুখ। বক্তরা বলেন, নির্দলীয় তত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে নিবার্চন হতে দেয়া হবে না। আন্দোলণ সংগ্রামের মাধ্যমে নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকার গঠন করে নিবার্চন দিতে বাধ্য করা হবে। আর তা না হলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ক্ষমতার মসনদ থেকে নামাতে বাধ্য হবে বিরোধীদল। কুলাউড়া প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •