ভারতের পাচারের পূর্বে : চাতলাপুর সীমান্তে পিকআপসহ ১২০ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ। আটক-২

October 26, 2013, এই সংবাদটি ৯০ বার পঠিত

চোরাই পথে ভারতে পাচারের পূর্বে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার চাতলাপুর সীমান্তে বিজিবি সদস্যরা পিকআপসহ ১২০ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করে। মাছ পাচারের দায়ে ২ ব্যক্তিকে আটক করা হয়। গত ২৫ অক্টোবর শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় চাতলাপুর সীমান্ত ফাঁড়ির বিজিবি সদস্যরা পিকআপসহ ইলিশ মাছ জব্দ করে দুই ব্যক্তিকে আটক করে। শ্রীমঙ্গলস্থ ১৪ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ব্যাটেলিয়ন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যার পূর্বে চাতলাপুর সীমান্ত এলাকার একটি চোরাই পথে এক টনা একটি পিকআপে করে ১২০ কেজি ইলিশ ভারতে পাচার চেষ্টা করে চোরা কারবারীরা। এসময় চাতলাপুর সীমান্ত ফাঁড়ির নায়েক সুবেদার আমিন মিয়ার নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহল দল মাছসহ পিকআপটি জব্দ করে। ইলিশ মাছ পাচারের চেষ্টার দায়ে মনিরুল ইসলাম (৩০) ও সমির মিয়া (২৮) নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। ১৪ বিজিবি ব্যাটেলিয়ন কমান্ডের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাহেদ মেহের ইলিশ মাছসহ পিকআপ জব্দ ও দুই ব্যক্তিকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক ব্যক্তিদের কুলাউড়া থানায় সোপর্দ করা হবে। আর পিকআপসহ জব্দকৃত ইলিশ মাছ শমশেরনগরস্থ শুল্ক অফিসে জমা করা হবে। রাতেই জব্দকৃত ইলিশ নিলামে বিক্রি করা হবে।
চোরাই পথে ভারতে পাচারের পূর্বে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার চাতলাপুর সীমান্তে বিজিবি সদস্যরা পিকআপসহ ১২০ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করে। মাছ পাচারের দায়ে ২ ব্যক্তিকে আটক করা হয়। গত ২৫ অক্টোবর শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় চাতলাপুর সীমান্ত ফাঁড়ির বিজিবি সদস্যরা পিকআপসহ ইলিশ মাছ জব্দ করে দুই ব্যক্তিকে আটক করে। শ্রীমঙ্গলস্থ ১৪ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ব্যাটেলিয়ন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যার পূর্বে চাতলাপুর সীমান্ত এলাকার একটি চোরাই পথে এক টনা একটি পিকআপে করে ১২০ কেজি ইলিশ ভারতে পাচার চেষ্টা করে চোরা কারবারীরা। এসময় চাতলাপুর সীমান্ত ফাঁড়ির নায়েক সুবেদার আমিন মিয়ার নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহল দল মাছসহ পিকআপটি জব্দ করে। ইলিশ মাছ পাচারের চেষ্টার দায়ে মনিরুল ইসলাম (৩০) ও সমির মিয়া (২৮) নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। ১৪ বিজিবি ব্যাটেলিয়ন কমান্ডের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাহেদ মেহের ইলিশ মাছসহ পিকআপ জব্দ ও দুই ব্যক্তিকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক ব্যক্তিদের কুলাউড়া থানায় সোপর্দ করা হবে। আর পিকআপসহ জব্দকৃত ইলিশ মাছ শমশেরনগরস্থ শুল্ক অফিসে জমা করা হবে। রাতেই জব্দকৃত ইলিশ নিলামে বিক্রি করা হবে। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •