বড়লেখায় আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি ও সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা

December 17, 2013, এই সংবাদটি ২১৮ বার পঠিত

মঙ্গলবার রাতে বড়লেখার শাহবাজপুরে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি সদস্যকে জামাত-শিবির কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ করেন আহত এ আওয়ামীলীগ নেতার। সুত্র জানায়, মঙ্গলবার (১০ডিসেম্বর) রাত সোয়া এগারটার দিকে বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য, আওয়ামীলীগ নেতা বদরুল হোসেন (৩৫) তার গ্রামের আলম হোসেনকে সাথে নিয়ে হোন্ডাযোগে স্থানীয় শাহবাজপুর বাজার থেকে বাড়ী ফিরছিলেন। এ সময় সায়ফুর গ্রামের রেল ক্রসিংয়ে পূর্বে থেকে উৎ পেতে থাকা জামাত শিবিরের ৪/৫জন ইউপি সদস্য বদরুল হোসেনের হোন্ডা থামিয়ে রাম দা দিয়ে কোপাতে থাকে। তার হাত ও পায়ে দায়ের কোপ লাগে। তিনি কোন মতে দৌড়ে পাশের বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেন। আহত অবস্থায় তাকে বড়লেখা স্বাস’্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়। ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেতা বদরুল হোসেন জানান, তাকে প্রাণে হত্যা করা জন্য জামাত-শিবিরের কর্মীরা আমার উপর হামলা চালিয়েছে। বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা আবুল হাশেম জানান, ঘটনা শুনেছি এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দিতে আসেনি। র্যাব-৯ এর শ্রীমঙ্গল অধিনায়ক সানা-শামীমুর রহমান বড়লেখায় ২ প¬াটুন র্যাব মোতায়নের সত্যতা নিশ্চত করেছেন। বিজিবি শ্রীমঙ্গল-১৪ ব্যাটেলিয়ানের মেজর ইকবাল আক্তার বিজিবি মোতায়নের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, পরিস্থতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বড়লেখায় তিন প¬াটুন বিজিবি মোতায়ন করা হয়েছে।
মঙ্গলবার রাতে বড়লেখার শাহবাজপুরে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি সদস্যকে জামাত-শিবির কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ করেন আহত এ আওয়ামীলীগ নেতার। সুত্র জানায়, মঙ্গলবার (১০ডিসেম্বর) রাত সোয়া এগারটার দিকে বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য, আওয়ামীলীগ নেতা বদরুল হোসেন (৩৫) তার গ্রামের আলম হোসেনকে সাথে নিয়ে হোন্ডাযোগে স্থানীয় শাহবাজপুর বাজার থেকে বাড়ী ফিরছিলেন। এ সময় সায়ফুর গ্রামের রেল ক্রসিংয়ে পূর্বে থেকে উৎ পেতে থাকা জামাত শিবিরের ৪/৫জন ইউপি সদস্য বদরুল হোসেনের হোন্ডা থামিয়ে রাম দা দিয়ে কোপাতে থাকে। তার হাত ও পায়ে দায়ের কোপ লাগে। তিনি কোন মতে দৌড়ে পাশের বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেন। আহত অবস্থায় তাকে বড়লেখা স্বাস’্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়। ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেতা বদরুল হোসেন জানান, তাকে প্রাণে হত্যা করা জন্য জামাত-শিবিরের কর্মীরা আমার উপর হামলা চালিয়েছে। বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা আবুল হাশেম জানান, ঘটনা শুনেছি এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দিতে আসেনি। র্যাব-৯ এর শ্রীমঙ্গল অধিনায়ক সানা-শামীমুর রহমান বড়লেখায় ২ প¬াটুন র্যাব মোতায়নের সত্যতা নিশ্চত করেছেন। বিজিবি শ্রীমঙ্গল-১৪ ব্যাটেলিয়ানের মেজর ইকবাল আক্তার বিজিবি মোতায়নের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, পরিস্থতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বড়লেখায় তিন প¬াটুন বিজিবি মোতায়ন করা হয়েছে। বড়লেখা প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •