১৮ দলের ডাকা ৮৪ ঘন্টার হরতাল মৌলভীবাজারে সমাবেশের মাধ্যমে সমাপ্ত

November 13, 2013, এই সংবাদটি ২১৫ বার পঠিত

নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকার পূর্ণবহাল এবং গ্রেফতারকৃত জাতীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবীতে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৮৪ ঘন্টার হরতালের ৪র্থ দিনে মৌলভীবাজারে সতস্ফূর্ত ভাবে পালিত হয়েছে। সকাল থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে দাড়িয়ে পিকেটিংয় করলে জেলা শহর অচল হয়ে যায়। সকাল থেকে শহর সম্পন্ন ফাঁকা ছিল। স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, ব্যাংক, বীমার অফিস খোলা তাকলেও মানুষের উপস্থিতি ছিল খুব কম। সকাল থেকে শহরের চাদনীঘাট বাস স্ট্যন্ড, শমসের নগর রোড, মোকাম বাজার, সরকার বাজার, সিরামপুর, শেরপুরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে ১৮ দলীয় জোটের নেতা কর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতিতে পিকেটিং ও মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । প্রতিটি স্পটে খন্ড খন্ড মিছিল ও পিকেটিং শেষে দুপুর ১২টায় চৌমুহনা পয়েন্টে সমাবেশে মিলিত হয়। সদর থানা বিএনপি সভাপতি মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকি এর সভাপতিত্বে বিশাল সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও ১৮ দলীয় জোটের আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি এম নাসের রহমান, জামায়াতে ইসলামীর মৌলভীবাজার জেলা আমীর ও ১৮ দলীয় জোটের যুগ্না আহ্বায়ক আব্দুল মান্নান, মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির প্রথম যুগ্ন সম্পাদক ও ১৮দলীয় জোট সদস্য সচিব আব্দুল মুকিত, জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী এম শাহেদ আলী, জেলা মুক্তিযোদ্বা দলের সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব, পৌরসভা জামায়াত আমীর ইয়ামীর আলী, সদর উপজেলা জামায়াতের আমীর আলাউদ্দিন শাহ, মৌলভীবাজার সদর থানা জোটের সদস্য সচিব মোঃ ফখরুল ইসলাম, বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট আনোয়ার আক্তার চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মতিন বকস, যুব জমিয়তের জেলা সভাপতি খালেদ সাইফুল্লাহ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক সৈয়দ ফয়ছল আহমদ, ছাত্রশিবির মৌলভীবাজার শহর সভাপতি হাফেজ তাজুল ইসলাম, প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার কেয়ারটেকার সরকারের গণদাবিকে পাশ কাটিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতেই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের পদত্যাগের নাটক মঞ্চস্থ করছে। কিন্তু সরকারের ষড়যন্ত্রে দেশের মানুষ আর কখনোই বিভ্রান্ত হবে না। বীরজনতা ৪র্থ দিনের হরতাল সর্বাত্মকভাবে সফল করে প্রমাণ করেছে তারা ফ্যাসিবাদী সরকারের যেকোন ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের প্রস্তুত। তিনি ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতি পরিহার করে অবিলম্বে কেয়ারটেকার সরকারের গণদাবি মেনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করার জোর দাবি করেন ।
নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকার পূর্ণবহাল এবং গ্রেফতারকৃত জাতীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবীতে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৮৪ ঘন্টার হরতালের ৪র্থ দিনে মৌলভীবাজারে সতস্ফূর্ত ভাবে পালিত হয়েছে। সকাল থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে দাড়িয়ে পিকেটিংয় করলে জেলা শহর অচল হয়ে যায়। সকাল থেকে শহর সম্পন্ন ফাঁকা ছিল। স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, ব্যাংক, বীমার অফিস খোলা তাকলেও মানুষের উপস্থিতি ছিল খুব কম। সকাল থেকে শহরের চাদনীঘাট বাস স্ট্যন্ড, শমসের নগর রোড, মোকাম বাজার, সরকার বাজার, সিরামপুর, শেরপুরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে ১৮ দলীয় জোটের নেতা কর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতিতে পিকেটিং ও মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । প্রতিটি স্পটে খন্ড খন্ড মিছিল ও পিকেটিং শেষে দুপুর ১২টায় চৌমুহনা পয়েন্টে সমাবেশে মিলিত হয়। সদর থানা বিএনপি সভাপতি মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকি এর সভাপতিত্বে বিশাল সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও ১৮ দলীয় জোটের আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি এম নাসের রহমান, জামায়াতে ইসলামীর মৌলভীবাজার জেলা আমীর ও ১৮ দলীয় জোটের যুগ্না আহ্বায়ক আব্দুল মান্নান, মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির প্রথম যুগ্ন সম্পাদক ও ১৮দলীয় জোট সদস্য সচিব আব্দুল মুকিত, জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী এম শাহেদ আলী, জেলা মুক্তিযোদ্বা দলের সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব, পৌরসভা জামায়াত আমীর ইয়ামীর আলী, সদর উপজেলা জামায়াতের আমীর আলাউদ্দিন শাহ, মৌলভীবাজার সদর থানা জোটের সদস্য সচিব মোঃ ফখরুল ইসলাম, বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট আনোয়ার আক্তার চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মতিন বকস, যুব জমিয়তের জেলা সভাপতি খালেদ সাইফুল্লাহ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক সৈয়দ ফয়ছল আহমদ, ছাত্রশিবির মৌলভীবাজার শহর সভাপতি হাফেজ তাজুল ইসলাম, প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার কেয়ারটেকার সরকারের গণদাবিকে পাশ কাটিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতেই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের পদত্যাগের নাটক মঞ্চস্থ করছে। কিন্তু সরকারের ষড়যন্ত্রে দেশের মানুষ আর কখনোই বিভ্রান্ত হবে না। বীরজনতা ৪র্থ দিনের হরতাল সর্বাত্মকভাবে সফল করে প্রমাণ করেছে তারা ফ্যাসিবাদী সরকারের যেকোন ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের প্রস্তুত। তিনি ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতি পরিহার করে অবিলম্বে কেয়ারটেকার সরকারের গণদাবি মেনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করার জোর দাবি করেন । ষ্টাফ রির্পোটার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •