শ্রীমঙ্গলে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে প্রভাবশালী মহল

July 3, 2013, এই সংবাদটি ২১৬ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গলে উপজেলার বিভিন্ন বালুমহাল থেকে সরকারি ও বিরোধী দলের প্রভাবশালী ব্যক্তিরা অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রির হিরিক চালিয়েছে। ফলে সরকার লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এদিকে অসাধু বালু ব্যবসায়ীরা যত্রতত্র বালু স্তুপ করে রাখায় একের পর এক দূর্ঘটনার কবলে পড়তে হচ্ছে যানবাহন গুলো। বিশেষ করে শহরের ভানুগাছ রোডস্থ যমুনা ডিপো, জালালিয়া-সিন্দুরখাঁন রোড, সাতগাও হাইওয়ে সড়কে এ দূর্ঘটনা প্রতিনিয়ত হচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শ্রীমঙ্গল শহরের শাপলা আবাসিক এলাকায় ভিতর দিয়ে প্রবাহিত ভুরভুরিয়াছড়া, ফূলছড়া, উদনাছড়া, জাগছড়া চা বাগান, রাধানগর ছড়া ও বৌলাছড়া, বিলাসছড়া, ইউসুব পুরসহ সরকার ইজারাকৃত ও ইজারাবিহীন বেশ কয়েকটি বালুমহাল থেকে দিনে ও রাতের আঁধারে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা ট্রাক, ট্রাক্টর বোঝাই করে উপজেলাসহ ও জেলার বিভিন্ন স্থানে বালু বিক্রি করে যাচ্ছে। শাপলা আবাসিক এলাকার সচেতন মহলের জানান, এক ওয়ার্ড কাউন্সিলর সহ আরো একজন ভুরভুরিয়া ছড়ার রেলওয়ে ব্রীজের পাশ থেকে অবাধে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছেন। জাগছড়া ফিনলে চা বাগান ব্যবস্থাপক অভিযোগ করেছেন রয়েলটির নামে অসাধু বালু খেকোরা প্রতিনিয়ত বালু বিক্রি করে যাচ্ছেন। শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশফাকুল হক চৌধুরী বলেন, অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী যেই হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। তিনি বলেন, আমি খোঁজ নিয়ে দেখতেছি।
শ্রীমঙ্গলে উপজেলার বিভিন্ন বালুমহাল থেকে সরকারি ও বিরোধী দলের প্রভাবশালী ব্যক্তিরা অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রির হিরিক চালিয়েছে। ফলে সরকার লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এদিকে অসাধু বালু ব্যবসায়ীরা যত্রতত্র বালু স্তুপ করে রাখায় একের পর এক দূর্ঘটনার কবলে পড়তে হচ্ছে যানবাহন গুলো। বিশেষ করে শহরের ভানুগাছ রোডস্থ যমুনা ডিপো, জালালিয়া-সিন্দুরখাঁন রোড, সাতগাও হাইওয়ে সড়কে এ দূর্ঘটনা প্রতিনিয়ত হচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শ্রীমঙ্গল শহরের শাপলা আবাসিক এলাকায় ভিতর দিয়ে প্রবাহিত ভুরভুরিয়াছড়া, ফূলছড়া, উদনাছড়া, জাগছড়া চা বাগান, রাধানগর ছড়া ও বৌলাছড়া, বিলাসছড়া, ইউসুব পুরসহ সরকার ইজারাকৃত ও ইজারাবিহীন বেশ কয়েকটি বালুমহাল থেকে দিনে ও রাতের আঁধারে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা ট্রাক, ট্রাক্টর বোঝাই করে উপজেলাসহ ও জেলার বিভিন্ন স্থানে বালু বিক্রি করে যাচ্ছে। শাপলা আবাসিক এলাকার সচেতন মহলের জানান, এক ওয়ার্ড কাউন্সিলর সহ আরো একজন ভুরভুরিয়া ছড়ার রেলওয়ে ব্রীজের পাশ থেকে অবাধে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছেন। জাগছড়া ফিনলে চা বাগান ব্যবস্থাপক অভিযোগ করেছেন রয়েলটির নামে অসাধু বালু খেকোরা প্রতিনিয়ত বালু বিক্রি করে যাচ্ছেন। শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশফাকুল হক চৌধুরী বলেন, অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী যেই হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। তিনি বলেন, আমি খোঁজ নিয়ে দেখতেছি। শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •