অবরোধের কারণে ট্রেনে চা পাতা চট্রগ্রাম পাঠানো হচ্ছে : ট্রেন না আসায় চা পাতা ষ্ট্রেশনে আটকা পড়ে আছে

January 4, 2014, এই সংবাদটি ১১৬ বার পঠিত

বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধের কারণে কমলগঞ্জ উপজেলার চা বাগান গুলো থেকে চা পাতা নিলামের জন্য ট্রেন যোগে পাঠানো হচ্ছে। ট্রেনের ও সময়মতো চলাচল না করায় চা পাতা সমুহ ২দিন ধরে ষ্ট্রেশনের প্লাটফর্মে পড়ে আছে। জানা যায় ,ন্যাশনাল ট্রি কোম্পানী আওতাধীন পাত্রখলা চা বাগান থেকে প্রক্রিয়াজাত কৃত চা পাতা নিলামের জন্য চট্রগ্রাম চা নিলাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়ে থাকে। চা পাতা গুলো নিয়মিত সড়ক পথে পাঠানো হয়ে থাকে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধের কারণে চালান গাড়ী পাওয়া যাচ্ছেনা। চালান গাড়ী না পাওয়ার কারণে চা বাগান কর্তৃপক্ষ চা পাতা ট্রেন যোগে পাঠানোর চেষ্টা করছেন। তারই অংশ হিসেবে গত ২রা জানুয়ারী কমলগঞ্জ উপজেলার পাত্রখলা চা বাগান থেকে প্রায় দেড় শত বস্তা চা পাতা ভানুগাছ রেলষ্ট্রেশনে এনে ট্রেনে বুকিং দেন। যা ঐদিন রাতে ১৪ ডাউন ট্রেনে যাওয়ার কথা ছিল। ট্রেনটি সময়মতো না আসায় চা পাতা সমুহ এখন রেল ষ্টেশনে পড়ে আছে। এ ব্যাপারে আলাপকালে পাত্রখলা চা বাগান ব্যবস্থাপক সেলিম আহমেদ জানান, আমরা চা পাতা নিলামের জন্য নিয়মিত ট্রাক যোগে চট্রগ্রাম নিলাম কেন্দ্রে পাঠিয়ে থাকি। কিন্তু এখন চালান গাড়ী না পাওয়ার কারনে চা পাতা ট্রেন যোগে পাঠাতে হচ্ছে। তাও এখন পর্যন্ত রেল ষ্টেশনে পড়ে আছে। কখন যাবে সঠিক করে বলতে পারছিনা। ভানুগাছ রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার রুস্তুম আলী ফকিরের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, ট্রেন আসলেই তা পাঠানো হবে।
বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধের কারণে কমলগঞ্জ উপজেলার চা বাগান গুলো থেকে চা পাতা নিলামের জন্য ট্রেন যোগে পাঠানো হচ্ছে। ট্রেনের ও সময়মতো চলাচল না করায় চা পাতা সমুহ ২দিন ধরে ষ্ট্রেশনের প্লাটফর্মে পড়ে আছে। জানা যায় ,ন্যাশনাল ট্রি কোম্পানী আওতাধীন পাত্রখলা চা বাগান থেকে প্রক্রিয়াজাত কৃত চা পাতা নিলামের জন্য চট্রগ্রাম চা নিলাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়ে থাকে। চা পাতা গুলো নিয়মিত সড়ক পথে পাঠানো হয়ে থাকে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধের কারণে চালান গাড়ী পাওয়া যাচ্ছেনা। চালান গাড়ী না পাওয়ার কারণে চা বাগান কর্তৃপক্ষ চা পাতা ট্রেন যোগে পাঠানোর চেষ্টা করছেন। তারই অংশ হিসেবে গত ২রা জানুয়ারী কমলগঞ্জ উপজেলার পাত্রখলা চা বাগান থেকে প্রায় দেড় শত বস্তা চা পাতা ভানুগাছ রেলষ্ট্রেশনে এনে ট্রেনে বুকিং দেন। যা ঐদিন রাতে ১৪ ডাউন ট্রেনে যাওয়ার কথা ছিল। ট্রেনটি সময়মতো না আসায় চা পাতা সমুহ এখন রেল ষ্টেশনে পড়ে আছে। এ ব্যাপারে আলাপকালে পাত্রখলা চা বাগান ব্যবস্থাপক সেলিম আহমেদ জানান, আমরা চা পাতা নিলামের জন্য নিয়মিত ট্রাক যোগে চট্রগ্রাম নিলাম কেন্দ্রে পাঠিয়ে থাকি। কিন্তু এখন চালান গাড়ী না পাওয়ার কারনে চা পাতা ট্রেন যোগে পাঠাতে হচ্ছে। তাও এখন পর্যন্ত রেল ষ্টেশনে পড়ে আছে। কখন যাবে সঠিক করে বলতে পারছিনা। ভানুগাছ রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার রুস্তুম আলী ফকিরের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, ট্রেন আসলেই তা পাঠানো হবে। à¦•à¦®à¦²à¦—ঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •