অবিলম্বে বকেয়া মজুরি পরিশোধ করে পূর্ণাঙ্গ চুক্তি সম্পাদনের দাবি বাংলাদেশ চা শ্রমিক ফেডারেশনের

November 13, 2022,

১৩ নভেম্বর ২০২২, রবিবার সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৩ঃ৩০টা পর্যন্ত মৌলভীবাজার পৌর জনমিলন কেন্দ্রে চা শ্রমিকদের প্রাপ্য বকেয়া মজুরি পরিশোধ করে পূর্ণাঙ্গ চুক্তি সম্পাদন করা এবং বাজার দরের সাথে সঙ্গতি রেখে ন্যায্য মজুরি বৃদ্ধির লড়াই জোরদারের দাবিকে সামনে রেখে বাংলাদেশ চা শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে কেন্দ্রীয় চা শ্রমিক প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চা শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি বিপ্লব মাদ্রাজি পাশীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক দীপংকর ঘোষের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড আহসান হাবিব বুলবুল। আলোচনা করেন ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা অ্যাড. মঈনুর রহমান মগনু, আবু জাফর, অ্যাড. আবুল হাসান, প্রণবজ্যোতি পাল, চা শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি কাজল রায়, লিটন মৃধা, সাংগঠনিক সম্পাদক কিরণ শুক্ল বৈদ্য, অর্থ সম্পাদক প্রেম কুমার পাল, সদস্য দীপচান তেলী, রতন গড়াইত, কেশব তাঁতি, ভরতলাল, গৌড় সবুজ গৌড়, ছাত্র ফ্রন্ট জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ নন্দী প্রমুখ।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে আহসান হাবিব বুলবুল বলেন, চা শ্রমিকরা ৩০০ টাকা মজুরির দাবিতে ১৯ দিন না খেয়ে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে গেলেন। প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা  শ্রমিকদের সাথে মিটিং করে, ভয় দেখিয়ে এবং মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে নানা কায়দায় শ্রমিকদের আন্দোলন থেকে সড়িয়ে নিয়ে মালিকদের স্বার্থ রক্ষার চেষ্টা করেও শ্রমিকদের অনমনীয় দৃড়তার মুখে তাদের সকল অপচেষ্টাই ব্যর্থ হলে পড়ে বিগত ২৭ জুলাই প্রধানমন্ত্রী চা বাগানের মালিকদের সাথে আলোচনা করে ১৭০ মজুরি নির্ধারণ করলেন। মজুরি নির্ধারণের সাড়ে তিন মাস চলে গেলেও মালিকরা নতুন মজুরি অনুযায়ী বকেয়া মজুরি পরিশোধ না করার জন্য নানাভাবে পাঁয়তারা চালিয়ে যাচ্ছে। তাহলে মালিকরা কি প্রধানমন্ত্রীর থেকেও বেশি শক্তিশালী? শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির আন্দোলন বানচাল করার জন্য ডিসি, এসপি সহ সকল প্রশাসন যেমন করে উঠে পড়ে লাগলো, তাহলে এখন কেন সেই প্রশাসন শ্রমিকদের প্রাপ্য বকেয়া মজুরি পাইয়ে দিতে উদ্যোগ নিচ্ছে না? এটা দিনের আলোর মত পরিষ্কার যে সরকার শুধু বাগান মালিকদের স্বার্থ রক্ষা করে। এমন পরিস্থিতিতে চা শ্রমিকদের দালাল নেতৃত্বের বাইরে একটা আপোষহীন বিপ্লবী ধারার ট্রেড ইউনিয়ন গড়ে তুলে আন্দোলন বিকশিত করতে হবে।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •