আরব আমিরাতে ভিসার নিয়মে বড় পরিবর্তন! ৫০ শতাংশ জরিমানা মওকুফ

October 8, 2022,

তোফায়েল পাপ্পু, (দুবাই) থেকে॥ আরব আমিরাতে ভিসার নিয়মে বড় পরিবর্তন এসেছে। চলতি বছরের এপ্রিলে মন্ত্রিসভা নতুন ভিসানিয়মের প্রস্তাব অনুমোদন করে। এরপর ৩ অক্টোবর সোমবার থেকে তা কার্যকর করা হয়েছে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী ভ্রমণ ভিসার ক্ষেত্রে ৩০দিন ও ৯০ দিনের পরিবর্তে এখন থেকে ৬০ দিনের ভিসা দেবে কর্তৃপক্ষ।মূলত ৯০ দিনের ভ্রমণ ভিসা বাতিল করে ৬০ দিনের করা হয়েছে। অভিবাসন আইনের বড় সংস্কারের ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত তাদের ভিসার নিয়মে পরিবর্তন করার ফলে সেখানে কর্মরত প্রবাসী থেকে শুরু করে বিদেশি পর্যটকদেও নতুন নিয়মের আওতায় আসতে হবে।
আমিরাত সরকারের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মেজর জেনারেল সুলতান ইউসুফ আলনাউমি বলেছেন যে এই নতুন ভিসা ব্যবস্থা কেবল বিদেশিদের জন্য ভিসা পদ্ধতি ঝামেলা মুক্ত এবং সহজই করবেনা, যারা দেশটিতে বসবাস, কাজ চাইছেন, সেই রকম মানুষদের ও সুবিধা দেবে। এটা বিনিয়োগের জন্য আর ও ভালো হবে।
এদিকে সবচেয়ে বড় পরিবর্তন এসেছে জরিমানায়। ভ্রমণ ভিসার নির্ধারিত মেয়াদের চেয়ে বেশি সময় আমিরাতে থাকলে প্রতিদিন ১০০ দিরহাম করে জরিমানা দিতে হতো। এটি কমিয়ে ৫০ দিরহাম করা হয়েছে।
ইতো মধ্যে ভ্রমণ ভিসা নিয়ে আমিরাতে অবস্থানরত যাদের জরিমানা করা হয়েছে, তাদের জরিমানার ৫০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। অনলাইনে ভ্রমণ ভিসার জরিমানা চেক করতে গেলে দেখা যাচ্ছে, এর ৫০ শতাংশ মওকুফ করা হয়েছে।
এছাড়া, গ্রীনভিসাধারীরা স্ত্রী বা স্বামী, সন্তান, বাবা-মা, বোনবাভাইকে সঙ্গে রাখতেপারেন। আর কারওযদি ছেলে সন্তান থাকে, তবে সে ২৫ বছর বয়স পর্যন্ত থাকার সুবিধা পেতে পারেন। আগে এই বয়সসীমা ছেলেদের ক্ষেত্রে ছিল ১৮ বছর। একই সঙ্গে, নতুন নিয়মে অবিবাহিত নারী বা প্রতিবন্ধী সন্তানের জন্য কোনো বয়স সীমা রাখা হয়নি। কারওভিসার মেয়াদ শেষ ব াবাতিল হয়ে গেলে তাকে ৬ মাসের গ্রেস পিরিয়ড দেওয়া হবে। গোল্ডেন ভিসায় একবারে ১০ বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে থাকতে পারা যায়। বিনিয়োগ কারী, ব্যবসায়ী বা গবেষক, চিকিৎসক, বিজ্ঞানীরা গোল্ডেন ভিসা পেতে পারেন।
নতুন নিয়ম কার্যকর হওয়ার পর এখন কোনো গোল্ডেন ভিসাধারী ৬ মাস সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাইরে থাকলে ও তার ভিসা বাতিল হবে না। এছাড়াও এই ভিসাধারী যে কোনো সংখ্যক গৃহকর্মী রাখতে পারবেন। অন্যদিকে গোল্ডেন ভিসায় পরিবারের সদস্য, স্ত্রী-সন্তান যে কোনো বয়সের সবাইকে এক সঙ্গে রাখা যাবে। ভিসা বাতিল বা মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা এক সঙ্গে থাকতে পারবেন।
দুবাইয়ের বাংলাদেশি ট্রাভেল ব্যবসায়ী সামছুদোহা মজুমদার বলেন, ‘৩ অক্টোবর সোমবার থেকেই আমরা শুধু ৩০ ও ৬০ দিনের ভিসার জন্য আবেদন করতে পারছি। ভিসার খরচ আগের মতোই আছে, কোনো পরিবর্তন হয়নি।’
শারজার বাংলাদেশি ভিসা এজেন্সি প্রতিষ্ঠানের মো: নাছির উদ্দিন বলেন, ‘জরিমানা ৫০ দিরহাম কার্যকর হওয়ার পাশাপাশি আগের ভ্রমণকারীদের জরিমানাও ৫০ শতাংশ মওকুফ কার্যকর হয়েছে।’

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •