মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত অবৈধ ও অনিবন্ধিত সুদের কারবারীর বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ

November 9, 2022,

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলা দায়ের ও প্রতিপক্ষকে হয়রানির অভিযোগে সি.আর ৪৭৫/২০২২(সদর) নং মামলার বাদী সুন্দর আলীর বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য মৌলভীবাজার মডেল থানা-কে নির্দেশ প্রদান করেন বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহম্মদ আলী আহসান।  বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহম্মদ আলী আহসান ৯ নভেম্বর এই আদেশ দেন।

চলতি বছরের ১৫ জুন মঙ্গলবার বিকাল ৩ ঘটিকায় বর্ণিত মামলার বাদী সুন্দর আলী আসামী ১। নিতেশ দাশ ও ২। গীতারানী দাশ তাদের মেয়ের বিবাহ উপলক্ষে বাদী সুন্দর আলীর নিকট হতে ৪ লক্ষ টাকা কর্জ নেন। পরবর্তী সময়ে উক্ত টাকা পরিশোধ করতে না পারায় বর্ণিত আসামীদের বিরুদ্ধে সুন্দর আলী বাদী হয়ে গত ২৭ জুন ১নং আমলগ্রহণকারী আদালত মৌলভীবাজার সদর-এ The Penal Code,, ১৮৬০ এর ৪০৬/৪২০/৫০৬ (দ্বিতীয় অংশ) ধারায় মামলা দায়ের করলে আদালত উক্ত ধারায় মামলা আমলে নিয়ে আসামীদের প্রতি সমন ইস্যু করে ৯ নভেম্বর মামলার তারিখ ধার্য করেন। ধার্য তারিখে আসামীগণ বিজ্ঞ আইনজীবী জামাল আহমদ এর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করেন।  জামিন শুননীর সময় আদালতে উপস্থিত আসামী পক্ষের বিজ্ঞ আইনজীবী ও স্থানীয় ইউ পি সদস্য মোঃ ফজলুর রহমান এর মাধ্যমে আদালত অবগত হন যে, বাদী সুন্দর আলীর নিকট হতে আসামীগণ চিকিৎসা সংক্রান্তে টাকার প্রয়োজনে মাত্র ২৫ হাজার টাকা কর্জ করেন। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালত স্থানীয় ইউ পি সদস্য মোঃ ফজলুর রহমান ও আসামী নিতেশ দাশ এর জবানবন্দি গ্রহণ করলে তারা আদালত কে অবহিত করেন যে, মামলার আর্জিতে উল্লেখিত ৪ লক্ষ টাকা কর্জ দেন নাই বাদী সুন্দর আলী মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে জাল চুক্তিপত্র সম্পাদনের মাধ্যমে উক্ত মামলা দায়ের করেন এবং বাদী সুন্দর আলী একজন প্রখ্যাত দাদন ব্যবসায়ী হিসেবে এলাকায় পরিচিত।

স্থানীয় অনেক মানুষকে সুদে টাকা প্রদান করেন ও পরবর্তীতে চক্রবৃদ্ধিতে সুদের টাকা আদায়ের জন্য বিভিন্ন প্রকার নির্যাতন করেন। উক্ত অবৈধ ও অনিবন্ধিত সুদের কারবারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। এমতাবস্থায়, সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহম্মদ আলী আহসান অবহিত হয়ে বাদী সুন্দর আলীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মৌলভীবাজার মডেল থানা কে নির্দেশ দিয়ে বাদী সুন্দর আলীকে কোর্ট কাস্টড়িতে প্রেরণ করেন এবং আসামীদের জামিনের আদেশ দেন। শুনানীর সময় বিজ্ঞ বিচারক আদালতে উপস্থিত মৌলভীবাজার জেলা বারের বিজ্ঞ সাধারণ সম্পাদক মোঃ বদরুল হোসেন ইকবাল সহ উপস্থিত বিজ্ঞ আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে বলেন এ দেশের অধিকাংশ মানুষই অসহায় দারিদ্রপীড়িত। গরীব, অসহায় ও নির্যাতিত সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের পাশে থেকে আইনী সেবা প্রদানের জন্য অনুরোধ করেন এবং মানুষ যেন মিথ্যা মামলায় হয়রানী না হয় সেজন্য মামলা দায়েরের ক্ষেত্রে বিজ্ঞ আইনজীবীদের আরও সতর্ক থাকার নির্দেশনা প্রদান করেন।

মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক পি,পি এ. এস. এম. আজাদুর রহমান বলেন, অনিবন্ধিত সুদের কারবারীর বিরুদ্ধে উক্ত ব্যতিক্রমী ও যুগান্তকারী আদেশের ফলে সমাজে অবৈধ সুদের কারবার হ্রাস পাবে।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ বদরুল হোসেন ইকবাল বলেন, আদালত যে দৃষ্টান্তমূলক আদেশ দিয়েছেন যার ফলে সমাজে নিরীহ ও নির্যাতিত মানুষের অবৈধ ও অনিবন্ধিত সুদের কারবারীদের করাল গ্রাস থেকে মুক্তি পাবার বিষয়ে আশার সঞ্চার হয়েছে।

পাবলিক প্রসিকিউটর (পি,পি) রাধাপদ দেব সজল বলেন, সুদ মানুষকে প্রকৃত অর্থনৈতিক কার্যকলাপ থেকে ফিরিয়ে রাখে । আদালতের উক্তরূপ আদেশের ফলে সমাজে অবৈধ সুদের কারবারীর সংখ্যা হ্রাস পাবে ।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •