দৃষ্টি প্রতিবন্ধী জাবেদ স্বাবলম্বি হতে চায়

October 30, 2013, এই সংবাদটি ২১৪ বার পঠিত

মৌলভীবাজার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্কুল থেকে গড়ে ওঠা জাবেদ মিয়া উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বচ্ছ ডিগ্রি সম্পন্ন করে সরকারি চাকুরি করতে চায়। সে মৌলভীবাজার শহরের মাতারকাপন এলাকার মাওঃ আব্দুল ওয়াহিদ এর পুত্র। বাবা পেশায় মসজিদের ইমাম। পরিবারে ৪ ভাই ৫ বোন ও মা বাবাসহ মধ্যবৃত্ত তাদের পরিবার। এই পরিবারে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী জাবেদ ছোট থেকে মহা পরিকল্পনা নিয়েছে মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠে সমাজকে কিছু উপহার দেবে। আর তাই শক্ত হাল ধরে ব্রেইল পদ্বতিতে পড়াশোনা করে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১০ সালে জিপিএ ৪.১৯ পেয়ে এসএসসি পাশ করে। এর পর ২০১৩ সালে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ থেকে জিপিএ ৪.৪৪ পেয়ে আইএ পাশ করেছে। জাবেদ বলে, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হলে কি হবে? আমি পড়াশেনায় ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্ছ ড্রিগ্রি অর্জন করে সরকারি চাকুরী করতে আগ্রহী। সে সমাজের বঞ্চিত-অবেহেলিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধ দের নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক। জাবেদ আরো বলে,আমরা দৃষ্টি প্রতিবন্ধরা সমাজের বুঝা হয়ে আর থাকেত চাইনা। আমরা নিজের পায়ে দাড়াতে চাই। স্রষ্টা আমাদের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিসেবে সৃষ্টি করছেন তাতে কোন দুঃখ নেই। আমরা দৃষ্টি প্রতিন্ধীরা রাব্বুল আলামীনকে স্মরন করে সামনে আগাতে চাই। সৃষ্টি কর্তার কাছে আমরা প্রতিন্ধী নই। রব আমাদের মন-প্রান সবই দিয়েছেন। সেগুলো কাজে লাগাতে পারলে আমরা দেশ এবং জাতিকে কিছু দিতে পারবো।
মৌলভীবাজার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্কুল থেকে গড়ে ওঠা জাবেদ মিয়া উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বচ্ছ ডিগ্রি সম্পন্ন করে সরকারি চাকুরি করতে চায়। সে মৌলভীবাজার শহরের মাতারকাপন এলাকার মাওঃ আব্দুল ওয়াহিদ এর পুত্র। বাবা পেশায় মসজিদের ইমাম। পরিবারে ৪ ভাই ৫ বোন ও মা বাবাসহ মধ্যবৃত্ত তাদের পরিবার। এই পরিবারে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী জাবেদ ছোট থেকে মহা পরিকল্পনা নিয়েছে মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠে সমাজকে কিছু উপহার দেবে। আর তাই শক্ত হাল ধরে ব্রেইল পদ্বতিতে পড়াশোনা করে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১০ সালে জিপিএ ৪.১৯ পেয়ে এসএসসি পাশ করে। এর পর ২০১৩ সালে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ থেকে জিপিএ ৪.৪৪ পেয়ে আইএ পাশ করেছে। জাবেদ বলে, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হলে কি হবে? আমি পড়াশেনায় ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্ছ ড্রিগ্রি অর্জন করে সরকারি চাকুরী করতে আগ্রহী। সে সমাজের বঞ্চিত-অবেহেলিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধ দের নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক। জাবেদ আরো বলে,আমরা দৃষ্টি প্রতিবন্ধরা সমাজের বুঝা হয়ে আর থাকেত চাইনা। আমরা নিজের পায়ে দাড়াতে চাই। স্রষ্টা আমাদের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিসেবে সৃষ্টি করছেন তাতে কোন দুঃখ নেই। আমরা দৃষ্টি প্রতিন্ধীরা রাব্বুল আলামীনকে স্মরন করে সামনে আগাতে চাই। সৃষ্টি কর্তার কাছে আমরা প্রতিন্ধী নই। রব আমাদের মন-প্রান সবই দিয়েছেন। সেগুলো কাজে লাগাতে পারলে আমরা দেশ এবং জাতিকে কিছু দিতে পারবো। সংবাদদাতা॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •