যোগাযোগ বিছিন্ন কমলগঞ্জের ছলিমগঞ্জ-যোগিবিল রাস্তা

September 25, 2013, এই সংবাদটি ৩৮৩ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের ছলিমগঞ্জ-যোগিবিল রাস্তা বিচ্ছিন্ন হওয়ায় জনসাধারণের চলাচল করতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ও অবেহিলত হয়ে পড়েছে যোগিবিল গ্রাম। এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বার বার উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হলেও কোন ফল হয়নি। সরেজমিন দেখা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ছলিমগঞ্জ থেকে যোগিবিল গ্রাম হয়ে সুনছড়া ও আলীনগর চা বাগান পাড়ি দিয়ে শমসেরনগরের সাথে রাস্তাটির যোগাযোগ। ছলিমগঞ্জ থেকে যোগিবিল যাওয়ার পথে লাঘাটা নদী উপর বাঁশের সাঁকো রয়েছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ও স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীরা নানা অসুবিধা ও দুর্ঘটনাকে সাথে নিয়ে সাঁকোর উপর দিয়ে চলাচল করতে হয়। জেলা সদর ও উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ না থাকায় গ্রামের বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলারা অসুবিধার সম্মুখীন হন। যোগাযোগের অসুবিধার কারণে অন্য গ্রামের লোকেরা এই গ্রামের সাথে সম্পর্ক রক্ষা করতে পারছেনা এমনকি এই গ্রামের সাথে আত্মীয়তা করতেও উৎসাহ পান না। যোগীবিল গ্রামের পূর্বদিকে রাবার বাগান ও সুনছড়া চা বাগান, দক্ষিণে আদিবাসী মণিপুরী সম্প্রদায়, পশ্চিমে ছলিমবাজার এবং উত্তরে আলীনগর চাবাগান। একমাত্র যোগাযোগ বিচ্ছিনের কারণে পিছিয়ে রয়েছে যোগিবিল গ্রাম। আলাপকালে আলীনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা বলেন, ছলিমগঞ্জ-যোগিবিল রাস্তার লাঘাটা সেতু নির্মানের জন্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে। শুধু আশ্বাস পাওয়া যাচ্ছে কয়েক বছর ধরে। বাস্তবে কিছুই হচ্ছে না। স্থানীয় সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাস খান বলেন, ছলিমগঞ্জ- যোগিবিল রাস্তার লাঘাটা নদীর উপর ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে এবং মন্ত্রণালয়ে তা স্কীম দেয়া রয়েছে।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের ছলিমগঞ্জ-যোগিবিল রাস্তা বিচ্ছিন্ন হওয়ায় জনসাধারণের চলাচল করতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ও অবেহিলত হয়ে পড়েছে যোগিবিল গ্রাম। এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বার বার উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হলেও কোন ফল হয়নি। সরেজমিন দেখা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ছলিমগঞ্জ থেকে যোগিবিল গ্রাম হয়ে সুনছড়া ও আলীনগর চা বাগান পাড়ি দিয়ে শমসেরনগরের সাথে রাস্তাটির যোগাযোগ। ছলিমগঞ্জ থেকে যোগিবিল যাওয়ার পথে লাঘাটা নদী উপর বাঁশের সাঁকো রয়েছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ও স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীরা নানা অসুবিধা ও দুর্ঘটনাকে সাথে নিয়ে সাঁকোর উপর দিয়ে চলাচল করতে হয়। জেলা সদর ও উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ না থাকায় গ্রামের বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলারা অসুবিধার সম্মুখীন হন। যোগাযোগের অসুবিধার কারণে অন্য গ্রামের লোকেরা এই গ্রামের সাথে সম্পর্ক রক্ষা করতে পারছেনা এমনকি এই গ্রামের সাথে আত্মীয়তা করতেও উৎসাহ পান না। যোগীবিল গ্রামের পূর্বদিকে রাবার বাগান ও সুনছড়া চা বাগান, দক্ষিণে আদিবাসী মণিপুরী সম্প্রদায়, পশ্চিমে ছলিমবাজার এবং উত্তরে আলীনগর চাবাগান। একমাত্র যোগাযোগ বিচ্ছিনের কারণে পিছিয়ে রয়েছে যোগিবিল গ্রাম। আলাপকালে আলীনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা বলেন, ছলিমগঞ্জ-যোগিবিল রাস্তার লাঘাটা সেতু নির্মানের জন্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে। শুধু আশ্বাস পাওয়া যাচ্ছে কয়েক বছর ধরে। বাস্তবে কিছুই হচ্ছে না। স্থানীয় সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাস খান বলেন, ছলিমগঞ্জ- যোগিবিল রাস্তার লাঘাটা নদীর উপর ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে এবং মন্ত্রণালয়ে তা স্কীম দেয়া রয়েছে। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •