খাসিয়াদের সহায়তায় কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের প্রবেশ পথের ক্ষতিগ্রস্ত কালভার্ট সেতু ও রাস্তা সংস্কার

May 14, 2017,

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের অফিস ও বন বিশ্রামাগার এলাকার প্রবেশ পথের কালভার্ট সেতুর সাইড ওয়ালে ধ্বস নেমে ও সড়কটির মাটি সরে খানা খন্দে পরিণত হয়েছিল গত এপ্রিল মাসের টানা বর্ষণে। সেতু ও সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় আগত পর্যটক, ছোট যানবাহন ও বনবাসী খাসিয়াদের স্বাভাবিক যাতায়াতে বিঘœ ঘটেছিল। সম্প্রতি টানা তিন দিন লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির উদ্যোগে স্থানীয় খাসিয়াদের সহায়তায় ক্ষতিগ্রস্ত কালভার্ট সেতু ও সড়কটি সংস্কার করলো।
লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান ফিলা পত্মী জানান, পাহাড়ি এলাকার সব চেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে টানা ভারী বৃষ্টিপাত। গত এপ্রিল মাসে টানা ভারী বৃষ্টির ফলে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের অফিস, বন বিশ্রামাগার ও খাসিয়া পুঞ্জির প্রবেশ পথের জামে মসজিদ সংলগ্ন কালভার্ট সেতুর সাইড ওয়ালের মাটির ধ্বস নামে। সেতুর মুখ থেকে মাটি সরে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছিল। এমনকি সড়কের অনেক স্থানে খানা খন্দেরও সৃষ্টি হয়েছিল। এই পথে প্রতিদিন শত শত দেশী বিদেশী পর্যটক চলাচল করতেন। সেতু ও সড়কের ক্ষতি হওয়ার পর পর্যটক ও আদিবাসী খাসিয়াদের স্বাভাবিক চলাচলে বিঘœ ঘটে। এমনকি বন বিভাগের ব্যবহৃত ছোট আকার যানবাহনও চলাচল করতে পারেনি।
বিষয়টি এ বনের বাসিন্দা আদিবাসী খাসিয়াদের ভাবিয়ে তুললে সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান, লাউয়াছড়া বনবিট কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন এর উদ্যোগে ও জাতীয় উদ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের সাথে আলোচনাক্রমে বৃহস্পতিবার থেকে ১৩ মে শনিবার পর্যন্ত ৩০ জন খাসিয়া সদস্যদের স্বত:স্ফুর্ত অংশ গ্রহনে ক্ষতিগ্রস্ত কালভার্ট সেতু ও সড়ক সংস্কার করলো। লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জির বয়স্ক হাতিম খাসিয়া ও সাজু খাসিয়ার নেতৃত্বে পুঞ্জির ৩০ জন সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত কালভার্ট সেতুর সাইড ওয়ালের পাশে বোরো বাঁশ দিয়ে পাইলিং করে বালু বস্তা স্থাপন করে। তাছাড়া সড়কের খানা খন্দ ভরে দেয়।
শ্রীমঙ্গলস্থ বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান জানান, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ উদ্যানের প্রবেশ পথের ক্ষতিগ্রস্ত কালভার্ট সেতু ও রাস্তা মেরামতে ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়। শ্রমিক দিয়ে এই কাজটুকু করানো হয়েছে। তকে খাসিয়া সদস্যরাও এতে সহায়তা করেছে। তিনি আরো বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণেই সেতু ও সড়ক ক্ষতির মুখে পড়েছিল। সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির উদ্যোগে এই সংস্কার কাজ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •