বিএনপির ২১ নেতার জামিন মঞ্জুর

September 1, 2013, এই সংবাদটি ৩৩০ বার পঠিত

বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান গ্রুপের নেতাকর্মীদের উপর খালেদা রব্বানী গ্রুপের করা মামলার ৩৫ জন আসামীর মধ্যে ২১ জন আসামী জামিন পেয়েছেন। ১ সেপ্টেম্বর রোববার মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামী পক্ষের উকিল অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করে। এ মামলার বাদী ছিলেন জুনেদ আহমদ। জানা যায়, বিএনপির কর্মী সভাকে কেন্দ্র করে গত ২৬ আগস্ট জেলা বিএনপির সভাপতি গ্রুপ ও সাধারন সম্পাদক গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষে ৫০ জনের মত আহত ও ৩ টি প্রাইভট কার ও ১৭টি মোটর সাইকেলে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বুধবার মডেল থানায় পাল্টাপাল্টি দুটো মামলা হয়। সভাপতি এম নাসের রহমান গ্রুপের ৩৫ জন নেতাকর্মীদের উপর সম্পাদক খালেদা রব্বানী গ্রুপের জুনেদ আহমদ বাদী হয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য হাজী মুজিবুর রহমান চৌধুরীকে প্রধান আসামী করে একটি মামলা করেন। অপরদিকে নাসের রহমান গ্রুপের যুবদল নেতা সাদিক আহমদ বাদী হয়ে খালেদা রব্বানী গ্রুপের ৩৭ জনকে আসামী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় পাল্টা মামলা করেন। খালেদা রব্বানী গ্রুপের করা মামলার আসামীরা রোববার আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত ৩৫ জনের মধ্যে ২১ জনের জামিন মঞ্জুর করে। আসামী পক্ষের উকিল অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান জানান, ৩৫ জন আসামীর মধ্যে আদালত ২১ জনের জামিন মঞ্জুর করেছে। বাকী আসামীদের জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে আবেদন করা হবে।
বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান গ্রুপের নেতাকর্মীদের উপর খালেদা রব্বানী গ্রুপের করা মামলার ৩৫ জন আসামীর মধ্যে ২১ জন আসামী জামিন পেয়েছেন। ১ সেপ্টেম্বর রোববার মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামী পক্ষের উকিল অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করে। এ মামলার বাদী ছিলেন জুনেদ আহমদ। জানা যায়, বিএনপির কর্মী সভাকে কেন্দ্র করে গত ২৬ আগস্ট জেলা বিএনপির সভাপতি গ্রুপ ও সাধারন সম্পাদক গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষে ৫০ জনের মত আহত ও ৩ টি প্রাইভট কার ও ১৭টি মোটর সাইকেলে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বুধবার মডেল থানায় পাল্টাপাল্টি দুটো মামলা হয়। সভাপতি এম নাসের রহমান গ্রুপের ৩৫ জন নেতাকর্মীদের উপর সম্পাদক খালেদা রব্বানী গ্রুপের জুনেদ আহমদ বাদী হয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য হাজী মুজিবুর রহমান চৌধুরীকে প্রধান আসামী করে একটি মামলা করেন। অপরদিকে নাসের রহমান গ্রুপের যুবদল নেতা সাদিক আহমদ বাদী হয়ে খালেদা রব্বানী গ্রুপের ৩৭ জনকে আসামী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় পাল্টা মামলা করেন। খালেদা রব্বানী গ্রুপের করা মামলার আসামীরা রোববার আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত ৩৫ জনের মধ্যে ২১ জনের জামিন মঞ্জুর করে। আসামী পক্ষের উকিল অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান জানান, ৩৫ জন আসামীর মধ্যে আদালত ২১ জনের জামিন মঞ্জুর করেছে। বাকী আসামীদের জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে আবেদন করা হবে। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •