মৌলভীবজারের চোখের জলে দেবী দূর্গাকে বিদায় জানালো হাজারো ভক্ত

October 17, 2013, এই সংবাদটি ২৪৭ বার পঠিত

বিজয়া দশমীতে মনুনদীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো মৌলভীবাজারের দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। বিদায়ের ব্যাথা আর চোখের জলে দেবী দূর্গাকে বিদায় জানালো এ জনপদের হাজারো ভক্ত। প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষে ১৪ অক্টোবর বিকেল ৪টায় মৌলভীবাজার শহরস্থ শ্রীশ্রী নতূন কালবিাড়ি থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়। শ্রীশ্রী নূতন কালীবাড়ি, ত্রিনয়নী, আবাহন, দূর্গাবাড়ী, দশভূজা, সুহৃদ সংঘ, হরিজন যুব সংঘসহ শহরের সকল মন্ডপ ও মন্দিরের প্রতিমাসহযোগে শোভাযাত্রায় অংশ নেয় হাজারো ভক্ত পূন্যার্থী। মাতৃবন্দনায় শহর প্রদক্ষিন করে শোভাযাত্রা শেষে মনুব্রীজ সংলগ্ন মনুনদীর ঘাটে প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়। সবাইকে চোখের জলে ভাসিয়ে দেবী দূর্গা ভেসে যান নিজ গন্তব্যে। ভক্তরা আরো একটি বছর পর মায়ের ফিরে আসার অপেক্ষা বুকে নিয়ে ঘরে ফেরে। সন্ধ্যায় প্রতিটি মন্ডপে শান্তিবারি ও বন্ধনী দেয়া হবে ভক্তদের। জেলায় ৭৭২ টি পূজাম-পে পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর দূর্গাদেবী পালকিতে আগমন করেছেন এবং গজে গমন করছেন। সোমবার বিকালে শোভাযাত্রাসহকারে দেবী দুর্গা ও অন্যান্য দেব-দেবীর বিসর্জন দেয়া হয় মনুনদীতে। জেলার সবকটি উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও আনুষ্ঠিানিকতায় প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন হয়েছে।
বিজয়া দশমীতে মনুনদীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো মৌলভীবাজারের দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। বিদায়ের ব্যাথা আর চোখের জলে দেবী দূর্গাকে বিদায় জানালো এ জনপদের হাজারো ভক্ত। প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষে ১৪ অক্টোবর বিকেল ৪টায় মৌলভীবাজার শহরস্থ শ্রীশ্রী নতূন কালবিাড়ি থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়। শ্রীশ্রী নূতন কালীবাড়ি, ত্রিনয়নী, আবাহন, দূর্গাবাড়ী, দশভূজা, সুহৃদ সংঘ, হরিজন যুব সংঘসহ শহরের সকল মন্ডপ ও মন্দিরের প্রতিমাসহযোগে শোভাযাত্রায় অংশ নেয় হাজারো ভক্ত পূন্যার্থী। মাতৃবন্দনায় শহর প্রদক্ষিন করে শোভাযাত্রা শেষে মনুব্রীজ সংলগ্ন মনুনদীর ঘাটে প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়। সবাইকে চোখের জলে ভাসিয়ে দেবী দূর্গা ভেসে যান নিজ গন্তব্যে। ভক্তরা আরো একটি বছর পর মায়ের ফিরে আসার অপেক্ষা বুকে নিয়ে ঘরে ফেরে। সন্ধ্যায় প্রতিটি মন্ডপে শান্তিবারি ও বন্ধনী দেয়া হবে ভক্তদের। জেলায় ৭৭২ টি পূজাম-পে পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর দূর্গাদেবী পালকিতে আগমন করেছেন এবং গজে গমন করছেন। সোমবার বিকালে শোভাযাত্রাসহকারে দেবী দুর্গা ও অন্যান্য দেব-দেবীর বিসর্জন দেয়া হয় মনুনদীতে। জেলার সবকটি উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও আনুষ্ঠিানিকতায় প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন হয়েছে। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •