কুলাউড়ার মুড়ইছড়া বিট অফিসারকে অপহরন ৫ ঘন্টা পর উদ্ধার-পুঞ্জি ও বনবিভাগ মুখোমুখি

October 1, 2013, এই সংবাদটি ৫৩৬ বার পঠিত

কুলাউড়ায় সীমান্তবর্তী কর্মধা ইউনিয়নের মুড়ইছড়া বনবিভাগের বিট অফিসার আতিয়ার রহমানকে সরকারী কাজে বাঁধা ও এক পর্যায়ে অপহরন করে নিয়ে আটক রাখার ৫ ঘন্টা পর পুলিশ ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেল ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে রাত ৮ টায় থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে, সোমবার দুপুর ১ টায় কুকিজুড়ি পুঞ্জি এলাকায়। বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, মুড়ইছড়া বনবিভাগের বিট অফিসার আতিয়ার রহমান বনবিভাগের বাঁশমহালসহ আশপাশের টিলা জমি কুকিজুড়ী এলাকায় দেখতে গেলে সোমবার দুপুর ১ টার দিকে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জির মন্ত্রী জুসেফ এর ছেলে হেনরী তালাংসহ ২৫/৩০জন তাকে ঘেরাও করে ধরে নিয়ে গিয়ে টিলায় একটি ঘরে আটকে রেখে। এ সময় বিট অফিসার এর সাথে থাকা গার্ড পালিয়ে এসে বিষয়টি বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাসহ পুলিশকে জানায়, বিষয়টি রেঞ্জ কর্মকর্তা বলরাম রায় নিশ্চিত করেন। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাসানুজ্জামান এর নেতৃত্বে এসআই রহমানসহ এক দল পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি এলাকা থেকে বিকেল ৫ টায় বিট অফিসারকে উদ্ধার করে রাত ৮ টায় থানায় নিয়ে আসেন। পুঞ্জির হেডম্যান হেনরী তালাং খাসিয়া জানান, কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি এলাকায় তাদের দখলীয় জায়গায় বিট অফিসার আতিয়ার রহমানের নেতৃত্বে ৩০/৩৫ জন পাবলিক লোক সোমবার দুপুরে পান পুঞ্জিুর টিলায় ২০০টি গাছ, সাড়ে ৫ থেকে ৬শত পানের লত কেটে ফেলা হয়। খবর পেয়ে পুঞ্জির লোকজন এসে বাধা দেয়। উত্তেজনার সময় নিরাপত্তার কারনে বিট অফিসারকে নিয়ে যাওয়া হয়। বন বিভাগের এ ঘটনায় তাদের ৭/৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তিান জানান। তবে তাদের পক্ষ থেকে এখনও মামলা হয়নি। অপর দিকে এ ঘটনায় মুড়ইছড়া বাজার এলাকায় সোমবার সন্ধায় মেগাটিলা পুঞ্জির এনজুলুর (৪৫) ও জুয়েল স্মাল (২০) নামে ২ জন খাসিয়া উত্তেজিত জনতার হামলার শিকার হন। আহত খাসিয়ারা কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। দূর্গম পাহাড়ি এলাকায় পুঞ্জি ও বনবিভাগ মুখোমুখি হওয়াতে যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। এ ব্যাপারে বনবিভাগের পক্ষ থেকে বিট অফিসার বাদী হয়ে সোমবার রাত ১২ টার দিকে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি হেডম্যান হেনরী তালাং সহ ১৯ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ১৫/২০জন অজ্ঞাতদের আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
কুলাউড়ায় সীমান্তবর্তী কর্মধা ইউনিয়নের মুড়ইছড়া বনবিভাগের বিট অফিসার আতিয়ার রহমানকে সরকারী কাজে বাঁধা ও এক পর্যায়ে অপহরন করে নিয়ে আটক রাখার ৫ ঘন্টা পর পুলিশ ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেল ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে রাত ৮ টায় থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে, সোমবার দুপুর ১ টায় কুকিজুড়ি পুঞ্জি এলাকায়। বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, মুড়ইছড়া বনবিভাগের বিট অফিসার আতিয়ার রহমান বনবিভাগের বাঁশমহালসহ আশপাশের টিলা জমি কুকিজুড়ী এলাকায় দেখতে গেলে সোমবার দুপুর ১ টার দিকে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জির মন্ত্রী জুসেফ এর ছেলে হেনরী তালাংসহ ২৫/৩০জন তাকে ঘেরাও করে ধরে নিয়ে গিয়ে টিলায় একটি ঘরে আটকে রেখে। এ সময় বিট অফিসার এর সাথে থাকা গার্ড পালিয়ে এসে বিষয়টি বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাসহ পুলিশকে জানায়, বিষয়টি রেঞ্জ কর্মকর্তা বলরাম রায় নিশ্চিত করেন। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাসানুজ্জামান এর নেতৃত্বে এসআই রহমানসহ এক দল পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি এলাকা থেকে বিকেল ৫ টায় বিট অফিসারকে উদ্ধার করে রাত ৮ টায় থানায় নিয়ে আসেন। পুঞ্জির হেডম্যান হেনরী তালাং খাসিয়া জানান, কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি এলাকায় তাদের দখলীয় জায়গায় বিট অফিসার আতিয়ার রহমানের নেতৃত্বে ৩০/৩৫ জন পাবলিক লোক সোমবার দুপুরে পান পুঞ্জিুর টিলায় ২০০টি গাছ, সাড়ে ৫ থেকে ৬শত পানের লত কেটে ফেলা হয়। খবর পেয়ে পুঞ্জির লোকজন এসে বাধা দেয়। উত্তেজনার সময় নিরাপত্তার কারনে বিট অফিসারকে নিয়ে যাওয়া হয়। বন বিভাগের এ ঘটনায় তাদের ৭/৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তিান জানান। তবে তাদের পক্ষ থেকে এখনও মামলা হয়নি। অপর দিকে এ ঘটনায় মুড়ইছড়া বাজার এলাকায় সোমবার সন্ধায় মেগাটিলা পুঞ্জির এনজুলুর (৪৫) ও জুয়েল স্মাল (২০) নামে ২ জন খাসিয়া উত্তেজিত জনতার হামলার শিকার হন। আহত খাসিয়ারা কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। দূর্গম পাহাড়ি এলাকায় পুঞ্জি ও বনবিভাগ মুখোমুখি হওয়াতে যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। এ ব্যাপারে বনবিভাগের পক্ষ থেকে বিট অফিসার বাদী হয়ে সোমবার রাত ১২ টার দিকে কুকিজুড়ী পান পুঞ্জি হেডম্যান হেনরী তালাং সহ ১৯ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ১৫/২০জন অজ্ঞাতদের আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কুলাউড়া অফিস :

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •