কুলাউড়ায় সৈনিক পার্টির ঈদ পুণর্মিলনী

October 22, 2013, এই সংবাদটি ২১৬ বার পঠিত

কুলাউড়া উপজেলা জাতীয় প্রাক্তন সৈনিক পার্টির এক ঈদ পুণর্মিলনী সভা গত ১৯ অক্টোবর শনিবার কুলাউড়া পাবলিক লাইব্রেরীতে অনুষ্ঠিত হয়। মৌলভীবাজার জেলা প্রাক্তন সৈনিক পার্টির আহবায়ক আজির উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সৈনিক পার্টির সাধারন সম্পাদক এম. লুৎফুল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন সিনিঃ ওয়াঃ অফিসার অবঃ মোঃ শমশের আলী, আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক ফজলে মাওলা চৌধুরী (ফুয়াদ)। বক্তব্য রাখেন সিনিঃ ওয়াঃ অফিসার অবঃ জলিল আহমদ, ওয়াঃ অফিসার অবঃ মোঃ জহির মিয়া, সার্জেন্ট সামছুদ্দিন, সার্জেন্ট ইউসুফ আলী, সার্জেন্ট ময়না মিয়া, সার্জেন্ট আব্দুস শহীদ, সার্জেন্ট জাহিদুল, কর্পোরাল মহরম আলী, কর্পোরাল মোঃ মহসিন আলী চৌধুরী, কর্পোরাল মোঃ আব্দুল মোতালেব, কর্পোরাল হাবিবুর রহমান, কর্পোরাল শওকত হোসেন, কর্পোরাল তারা মিয়া, ল্যান্স কর্পোরাল এম এ শহীদ চৌধুরী, নায়েক আব্দুল মতিন, নায়েক রুস্তম আলী, নায়েক আব্দুল হামিদ, সৈনিক মোঃ মাহমুদুর রহমান চৌধুরী, ল্যান্স কর্পোরাল মোতাহের আলী, ল্যান্স কর্পোরাল আব্দুল গনি, কর্পোরাল মমিনুল ইসলাম চৌধুরী, ল্যান্স কর্পোরাল মোস্তফা উদ্দিন, সৈনিক লেবু মিয়া, সৈনিক মোঃ আরজান মিয়া, ল্যান্স কর্পোরাল জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা বলেন এরশাদের শাসন আমল ছিল স্বর্ণযুগ। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ছিল এবং মানুষ শান্তিতে ছিল। দেশ ও জাতির কল্যানে সাবেক সৈনিক ও রাষ্ট্রপতি জেনারেল এরশাদের হাতকে শক্তিশালী করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সভা শেষে এরশাদের দীর্ঘায়ু কামনা করে এক দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। পরে আনন্দঘন পরিবেশে এক প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হয়।
কুলাউড়া উপজেলা জাতীয় প্রাক্তন সৈনিক পার্টির এক ঈদ পুণর্মিলনী সভা গত ১৯ অক্টোবর শনিবার কুলাউড়া পাবলিক লাইব্রেরীতে অনুষ্ঠিত হয়। মৌলভীবাজার জেলা প্রাক্তন সৈনিক পার্টির আহবায়ক আজির উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সৈনিক পার্টির সাধারন সম্পাদক এম. লুৎফুল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন সিনিঃ ওয়াঃ অফিসার অবঃ মোঃ শমশের আলী, আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক ফজলে মাওলা চৌধুরী (ফুয়াদ)। বক্তব্য রাখেন সিনিঃ ওয়াঃ অফিসার অবঃ জলিল আহমদ, ওয়াঃ অফিসার অবঃ মোঃ জহির মিয়া, সার্জেন্ট সামছুদ্দিন, সার্জেন্ট ইউসুফ আলী, সার্জেন্ট ময়না মিয়া, সার্জেন্ট আব্দুস শহীদ, সার্জেন্ট জাহিদুল, কর্পোরাল মহরম আলী, কর্পোরাল মোঃ মহসিন আলী চৌধুরী, কর্পোরাল মোঃ আব্দুল মোতালেব, কর্পোরাল হাবিবুর রহমান, কর্পোরাল শওকত হোসেন, কর্পোরাল তারা মিয়া, ল্যান্স কর্পোরাল এম এ শহীদ চৌধুরী, নায়েক আব্দুল মতিন, নায়েক রুস্তম আলী, নায়েক আব্দুল হামিদ, সৈনিক মোঃ মাহমুদুর রহমান চৌধুরী, ল্যান্স কর্পোরাল মোতাহের আলী, ল্যান্স কর্পোরাল আব্দুল গনি, কর্পোরাল মমিনুল ইসলাম চৌধুরী, ল্যান্স কর্পোরাল মোস্তফা উদ্দিন, সৈনিক লেবু মিয়া, সৈনিক মোঃ আরজান মিয়া, ল্যান্স কর্পোরাল জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা বলেন এরশাদের শাসন আমল ছিল স্বর্ণযুগ। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ছিল এবং মানুষ শান্তিতে ছিল। দেশ ও জাতির কল্যানে সাবেক সৈনিক ও রাষ্ট্রপতি জেনারেল এরশাদের হাতকে শক্তিশালী করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সভা শেষে এরশাদের দীর্ঘায়ু কামনা করে এক দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। পরে আনন্দঘন পরিবেশে এক প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হয়। কুলাউড়া অফিস :

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •