কমলগঞ্জে ছিনতাইয়ের হাত থেকে রক্ষা পেল চালকসহ অটোরিক্সা

November 20, 2013, এই সংবাদটি ৫০১ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে চালকের চাতুরীপনা আর হঠাৎ করে আসা একটি ট্রাকের বাতির আলোর কারণে ছিনতাইকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে একটি সিএনজি অটোরিক্সা। গত ১৮ নভেম্বর সোমবার রাত সাড়ে ৭ টায় কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান প্রবেশ পথ ফুলবাড়ি চা বাগান এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যা রাত সাড়ে ৭টায় শমশেরনগর থেকে যাত্রী নিয়ে ভানুগাছ গিয়ে আবার ফেরার পথে ৩ সদস্যের ছিনতাইকারী চক্র মৌলভীবাজার-থ ১৫৮৭ নম্বর একটি সিএনজি অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। ছিনতাইকারী চক্র জোর পূর্বক অটোরিক্সা নিয়ে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান এলাকায় প্রবেশকালে প্রথমে চালকের কাছ থেকে নগদ অর্থ ও মুঠোফোন চিনিয়ে নেয়। পরে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে চালক নজরুল অটোরিক্সার চাবিটি ঝোপের মাছে ফেলে দেয়। এমন সময় বিপরীত দিক থেকে একটি ট্রাক আসতে থাকলে ট্রাকের বাতির আলো দেখে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। ফলে অল্পের জন্য অটোরিক্সাসহ চালক নজরুল রক্ষা পেয়েছে। সিএনজি অটোরিক্সার মালিক এমরান আলী জানান, মাত্র ২০ মিনিটের পথ অতিক্রম করে দীর্ঘ সময়ে সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে চালক ফিরে না আসায় বিষয়টি কমলগঞ্জ থানা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়। এএসপি (সার্কেল) আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে দ্রুত পুলিশি তৎপরতা শুরু হলে ছিনতাইকারী লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের গভীর বনপথে পালিয়ে যায়। চালক নজরুল জানায়, যেহেতু সে ছিনতাইকারীদের সাথে ধস্তাধস্তি করেছে সেহেতু প্রয়োজনে তাকে হত্যা করে হলেও অটোরিক্সাটি ছিনতাই করে নেওয়া হত। এ এসপি (সার্কেল) আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গত ২ মাসে কমলগঞ্জ থেকে বেশ কয়েকটি প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিক্সা চুরি হয়েছে। একটি শক্তিশালী চক্র এ কাজে জড়িত। তাদের ধরার জোর তৎপরতা চলছে।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে চালকের চাতুরীপনা আর হঠাৎ করে আসা একটি ট্রাকের বাতির আলোর কারণে ছিনতাইকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে একটি সিএনজি অটোরিক্সা। গত ১৮ নভেম্বর সোমবার রাত সাড়ে ৭ টায় কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান প্রবেশ পথ ফুলবাড়ি চা বাগান এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যা রাত সাড়ে ৭টায় শমশেরনগর থেকে যাত্রী নিয়ে ভানুগাছ গিয়ে আবার ফেরার পথে ৩ সদস্যের ছিনতাইকারী চক্র মৌলভীবাজার-থ ১৫৮৭ নম্বর একটি সিএনজি অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। ছিনতাইকারী চক্র জোর পূর্বক অটোরিক্সা নিয়ে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান এলাকায় প্রবেশকালে প্রথমে চালকের কাছ থেকে নগদ অর্থ ও মুঠোফোন চিনিয়ে নেয়। পরে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে চালক নজরুল অটোরিক্সার চাবিটি ঝোপের মাছে ফেলে দেয়। এমন সময় বিপরীত দিক থেকে একটি ট্রাক আসতে থাকলে ট্রাকের বাতির আলো দেখে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। ফলে অল্পের জন্য অটোরিক্সাসহ চালক নজরুল রক্ষা পেয়েছে। সিএনজি অটোরিক্সার মালিক এমরান আলী জানান, মাত্র ২০ মিনিটের পথ অতিক্রম করে দীর্ঘ সময়ে সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে চালক ফিরে না আসায় বিষয়টি কমলগঞ্জ থানা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়। এএসপি (সার্কেল) আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে দ্রুত পুলিশি তৎপরতা শুরু হলে ছিনতাইকারী লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের গভীর বনপথে পালিয়ে যায়। চালক নজরুল জানায়, যেহেতু সে ছিনতাইকারীদের সাথে ধস্তাধস্তি করেছে সেহেতু প্রয়োজনে তাকে হত্যা করে হলেও অটোরিক্সাটি ছিনতাই করে নেওয়া হত। এ এসপি (সার্কেল) আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গত ২ মাসে কমলগঞ্জ থেকে বেশ কয়েকটি প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিক্সা চুরি হয়েছে। একটি শক্তিশালী চক্র এ কাজে জড়িত। তাদের ধরার জোর তৎপরতা চলছে। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •