রাজনগরে পাঁচ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৪০ : পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশের ৩৭ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ

July 16, 2013, এই সংবাদটি ৪২৪ বার পঠিত

রাজনগর উপজেলার কোনাগাঁও বাজারে গতকাল ১৬ জুলাই মঙ্গলবার সকালে পূর্ব ঘটনার জের ধরে ৫ গ্রামের জনতার মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় উভয়ের সংঘর্ষ ও পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৩৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে। সংঘর্ষের সময় হামলাকারীরা কোনাগাও বাজারে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায় । পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার খাসপ্রেম নগর এলাকায় কোনাগাও ও খাসপ্রেম নগরের যুবকদের মধ্যে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচকে কেন্দ্র করে মাস দেড়েক পুর্বে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় কয়েকজন আহত হয়। এ ঘটনার জের ধরে জুন মাসের শেষ দিকে কোনাগাও বাজারে খাসপ্রেম নগরের কয়েকজন যুবক হামলা চালিয়ে চুনু মিয়া নামক এক যুবককে আহত করে। এ নিয়ে গত ১৫ জুলাই সোমবার রাতে খাসপ্রেম নগর গ্রামের শতাধিক লোকজন তারাবীর নামাজের সময় কোনাগাও বাজারে হামলা চালায়। এতে আদিনাবাদ, কোনাগাঁও, টগরপুর ও খাসপ্রেম নগর, গোবধিরপাড় গ্রামের অন্তত ২৫ জন আহত হয়। এসময় বাজারের ২০/২৫ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট চালানো হয়। গত ১৫ জুলাই সোমবারের ঘটনার জের ধরে পরদিন মঙ্গলবার সকাল থেকে উভয় পক্ষ সংঘর্ষের প্রস্তুতি নিতে থাকলে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে এবং কোনাগাও এলাকাবাসীকে পুলিশ নিবৃত করে। অন্যদিকে খাস প্রেমনগর গ্রামের লোকজন মনুনদী পার হয়ে কোনাগাও বাজারে হামলা চালালে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৩৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে। পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে ১২ জন সহ উভয় পক্ষের অন্তত ৪০ জন আহত হয়। আহতদের রাজনগর ও মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এলাকায় উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
রাজনগর উপজেলার কোনাগাঁও বাজারে গতকাল ১৬ জুলাই মঙ্গলবার সকালে পূর্ব ঘটনার জের ধরে ৫ গ্রামের জনতার মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় উভয়ের সংঘর্ষ ও পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৩৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে। সংঘর্ষের সময় হামলাকারীরা কোনাগাও বাজারে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায় । পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার খাসপ্রেম নগর এলাকায় কোনাগাও ও খাসপ্রেম নগরের যুবকদের মধ্যে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচকে কেন্দ্র করে মাস দেড়েক পুর্বে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় কয়েকজন আহত হয়। এ ঘটনার জের ধরে জুন মাসের শেষ দিকে কোনাগাও বাজারে খাসপ্রেম নগরের কয়েকজন যুবক হামলা চালিয়ে চুনু মিয়া নামক এক যুবককে আহত করে। এ নিয়ে গত ১৫ জুলাই সোমবার রাতে খাসপ্রেম নগর গ্রামের শতাধিক লোকজন তারাবীর নামাজের সময় কোনাগাও বাজারে হামলা চালায়। এতে আদিনাবাদ, কোনাগাঁও, টগরপুর ও খাসপ্রেম নগর, গোবধিরপাড় গ্রামের অন্তত ২৫ জন আহত হয়। এসময় বাজারের ২০/২৫ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট চালানো হয়। গত ১৫ জুলাই সোমবারের ঘটনার জের ধরে পরদিন মঙ্গলবার সকাল থেকে উভয় পক্ষ সংঘর্ষের প্রস্তুতি নিতে থাকলে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে এবং কোনাগাও এলাকাবাসীকে পুলিশ নিবৃত করে। অন্যদিকে খাস প্রেমনগর গ্রামের লোকজন মনুনদী পার হয়ে কোনাগাও বাজারে হামলা চালালে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৩৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে। পুলিশের রাবার বুলেটের আঘাতে ১২ জন সহ উভয় পক্ষের অন্তত ৪০ জন আহত হয়। আহতদের রাজনগর ও মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এলাকায় উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ষ্টাফ রিপোর্টার:

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •