কুলাউড়ায় বিএনপির বর্ধিতসভা ও মিছিল

December 29, 2013, এই সংবাদটি ১৮১ বার পঠিত

বিরোধীদল বিহীন একতরফা ৫ জানুয়ারীর নির্বাচন প্রতিহতের আন্দোলনে একাত্মতা পোষন করলেন কুলাউড়া উপজেলার ৮ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। গতকাল ২৫ ডিসেম্বর বুধবার দুপরে কুলাউড়া উপজেলা বিএনপি আয়োজিত বর্ধিত সভায় তারা আনুষ্টানিকভাবে এ ঘোষনা দেন। কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি পৌরসভার প্যানেল মেয়র জয়নাল আবেদীন বাচ্চুর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ তফজ্জুল হোসেনের পরিচালনায় উক্ত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি ও সাবেক এমপি এম এম শাহীন। তিনি বলেন, দেশ আজ গভীর সংকটে। দেশ ও জাতির উন্নয়নে যে দলটি দীর্ঘদিন বলিষ্ট ভূমিকা রেখেছে, তাদের নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়ত জেল-জুলুমের শিকার হচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ঢাকা অভিমুখে ২৯ ডিসেম্বরের যাত্রা সফল করার পাশাপাশি ৫ জানুয়ারীর একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করতে হবে। সে লক্ষ্যে সংগ্রাম কমিটির মাধ্যমে সকল স্থরের নেতাকর্মীদের দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এদিকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে সাড়া দিয়ে একাত্মতা পোষন করে এম এম শাহীনের নেতৃত্বে বর্ধিত সভায় বিএনপি পন্থী কুলাউড়ার ৮ চেয়ারম্যান যোগদান করেন। তারা হলেন ব্রাহ্মনবাজার ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমত, টিলাগাও ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মহিউদ্দিন আহমদ, কর্মধা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সহিদ বাবুল, জয়চন্ডি ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন আহমদ কমরু, রাউৎগাও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল, হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী, ভাটেরা ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মোঃ সিরাজ মিয়া, বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান ইছহাক চৌধুরী ইমরান। এছাড়াও বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি রফিক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান খান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সজল, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি প্রভাষক সিপার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফ্ফার চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক জয়নুল ইসলাম জুনেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মইজ উদ্দিন, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক কাউন্সিলর মনজুরুল আলম চৌধুরী খোকন, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক দলের আহ্বায়ক সারওয়ার আলম বেলাল, উপজেলা শ্রমিক দলের আহ্বায়ক ইসলাম উদ্দিন জ্ঞানী, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক নুরুল ইসলাম ইমন, পৌর স্বেচ্ছা সেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সুরমান আহমদ, কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আব্দুল মুহিত ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমদ টিপু প্রমুখ। পরে ‘চলো চলো-ঢাকা চলো,খালেদা জিয়া নির্দেশ দিলো’ শ্লে¬াগানে শ্লে¬াগানে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল পুরো শহর প্রদক্ষিন করে।
বিরোধীদল বিহীন একতরফা ৫ জানুয়ারীর নির্বাচন প্রতিহতের আন্দোলনে একাত্মতা পোষন করলেন কুলাউড়া উপজেলার ৮ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। গতকাল ২৫ ডিসেম্বর বুধবার দুপরে কুলাউড়া উপজেলা বিএনপি আয়োজিত বর্ধিত সভায় তারা আনুষ্টানিকভাবে এ ঘোষনা দেন। কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি পৌরসভার প্যানেল মেয়র জয়নাল আবেদীন বাচ্চুর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ তফজ্জুল হোসেনের পরিচালনায় উক্ত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি ও সাবেক এমপি এম এম শাহীন। তিনি বলেন, দেশ আজ গভীর সংকটে। দেশ ও জাতির উন্নয়নে যে দলটি দীর্ঘদিন বলিষ্ট ভূমিকা রেখেছে, তাদের নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়ত জেল-জুলুমের শিকার হচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ঢাকা অভিমুখে ২৯ ডিসেম্বরের যাত্রা সফল করার পাশাপাশি ৫ জানুয়ারীর একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করতে হবে। সে লক্ষ্যে সংগ্রাম কমিটির মাধ্যমে সকল স্থরের নেতাকর্মীদের দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এদিকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে সাড়া দিয়ে একাত্মতা পোষন করে এম এম শাহীনের নেতৃত্বে বর্ধিত সভায় বিএনপি পন্থী কুলাউড়ার ৮ চেয়ারম্যান যোগদান করেন। তারা হলেন ব্রাহ্মনবাজার ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমত, টিলাগাও ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মহিউদ্দিন আহমদ, কর্মধা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সহিদ বাবুল, জয়চন্ডি ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন আহমদ কমরু, রাউৎগাও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল, হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী, ভাটেরা ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মোঃ সিরাজ মিয়া, বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান ইছহাক চৌধুরী ইমরান। এছাড়াও বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি রফিক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান খান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সজল, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি প্রভাষক সিপার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফ্ফার চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক জয়নুল ইসলাম জুনেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মইজ উদ্দিন, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক কাউন্সিলর মনজুরুল আলম চৌধুরী খোকন, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক দলের আহ্বায়ক সারওয়ার আলম বেলাল, উপজেলা শ্রমিক দলের আহ্বায়ক ইসলাম উদ্দিন জ্ঞানী, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক নুরুল ইসলাম ইমন, পৌর স্বেচ্ছা সেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সুরমান আহমদ, কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আব্দুল মুহিত ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমদ টিপু প্রমুখ। পরে ‘চলো চলো-ঢাকা চলো,খালেদা জিয়া নির্দেশ দিলো’ শ্লে¬াগানে শ্লে¬াগানে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল পুরো শহর প্রদক্ষিন করে। কুলাউড়া অফিস॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •